চুলের যত্নে ভুল | দূর করুন ৮টি ক্ষতিকর অভ্যাস!

চুলের যত্নে ভুল | দূর করুন ৮টি ক্ষতিকর অভ্যাস!

10

সুন্দর চুল যে কোনো নারীর সৌন্দর্য বহুগুনে বাড়িয়ে দেয়। তাইতো সুন্দর চুল পেতে কতো যত্ন এবং কতোকিছুর পেছনে দৌড়াতে থাকি আমরা। কিন্তু চুলের ভালো করতে গিয়ে, কিছু ভুল করে ফেলার ফলে আবার চুলের ক্ষতি করে ফেলি! আজকে আমরা আপনাদের জানাবো চুলের যত্নে আমাদের করা ভুলগুলো সম্পর্কে। চলুন জেনে নেই কিভাবে আমরা করে থাকি চুলের যত্নে ভুল।

চুলের যত্নে ভুল

(১) অতিরিক্ত চুল আঁচড়ানো  

চুলের যত্নে প্রথম ভুল হচ্ছে অতিরিক্ত চুল আঁচড়ানো। চুল সুন্দর, জটহীন রাখতে চুল আঁচড়ানোকে আমরা সবথেকে বেশি গুরুত্ব দেই। অনেকেই বলে থাকেন, চুল আঁচড়াতে গেলেই খুব চুল পড়ে। এর কারণ আছে। আপনি নিশ্চয়ই চুল গোড়ার দিক থেকে আঁচড়ানো শুরু করেন। যার ফলে, উপর থেকে জটগুলো চুলের আগা পর্যন্ত যেতে থাকে। আর শেষমেশ,  নিচের সব জটগুলো একসাথে ছাড়িয়ে নিতে গিয়েই বাঁধে বিপত্তি। চুল ভাঙতে এবং ছিড়তে থাকে। এজন্যে চুল সব সময় আগার দিক থেকে শুরু করে আস্তে আস্তে কম্ব করে করে উপরের দিকে উঠতে হবে। এতে খুব বেশী জট জমা হবে না এবং চুলও ভাঙবে/ছিড়বে কম।

(২) হিট প্রোটেক্টর স্প্রে স্কিপ করা 

হেয়ার স্টাইল করতে গেলে হিট, আয়রন, কার্লার ইত্যাদির দিকে চোখ যায় আমাদের। এগুলো দিয়ে স্টাইল করা অনেক সহজ এবং দেখতেও তো সুন্দর লাগে। কিন্তু এর ফলে চুলের অনেক ক্ষতি হচ্ছে। যত সম্ভব এই সকল প্রোডাক্ট থেকে নিজেকে দূরে রাখার চেষ্টা করবেন। হিটলেস হেয়ার স্টাইল ট্রাই করতে পারেন। আর যদি এসব প্রোডাক্ট ব্যবহার করতেই হয় তবে ব্যবহার করার আগে পুরো চুলে হিট প্রোটেক্টর স্প্রে লাগিয়ে নিতে হবে। এতে ড্যামেজ কম হবে।

(৩) সঠিকভাবে তেল ব্যবহার

চুলের যত্নের জন্যে যে জিনিসটি আমাদের সবার চোখে পড়ে, তা হলো চুলে তেল ব্যবহার করা। চুলে তো তেল ব্যবহার করবেনই। তবে, সেটা নিয়ম মাফিক। খুব বেশী তেল ব্যবহার করা কিন্তু ঠিক নয়। সপ্তাহে ১-২ বারের বেশী তেল ব্যবহার না করাই ভালো। কারণ অতিরিক্ত তেল ব্যবহার করলেই কিন্তু আপনার চুল ঘন হয়ে যাবে না বরং তাতে খুশকি বাড়ার সুযোগ থাকে। এছাড়াও তেল ব্যবহারের পর যদি ভালোভাবে শ্যাম্পু না করা হয়, তবে কিন্তু চুল পড়তে পারে। তাই সপ্তাহে ১-২ বার তেল ব্যবহার করবেন।

(৪) হেয়ার গ্রোথ পিল 

অনেককেই দেখা যায় চুলের গ্রোথের জন্যে হেয়ার গ্রোথ পিল খেতে। আন্দাজে এসব পিল খাওয়া খুব একটা স্বাস্থ্যকর নয়। তাই রিস্ক না নেওয়াই ভালো। যদি খেতে হয় চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

(৫) টাওয়াল দিয়ে জোরে চুল ঘষা

চুল ধোয়ার পর টাওয়াল দিয়ে জোরে জোরে চুল ঘষে পানিটা শুকিয়ে নেওয়ার চেষ্টা। অনেকেই এই কাজটা করে থাকেন।এতে আপনার চুলের আগা ফেটে যাবে। তাই চুল সবসময় টাওয়াল দিয়ে আস্তে চেপে চেপে চুলের পানিটুকু শুষে নেওয়ার চেষ্টা করবেন।

(৬) চুল টিজ করা

সুন্দর স্টাইল পেতে চুল টিজ করা বন্ধ করুন। টিজ করা চুল দেখতে সুন্দর লাগলেও যখন চুলগুলো খুলতে যাবেন তখন কিন্তু প্রচুর চুল পড়ার সম্মুখীন হবেন। তাছাড়া টিজ করা চুল ঠিক রাখতে যদি ব্যবহার করেন হেয়ার স্প্রে তাহলে চুলের অনেক ক্ষতি হয়ে থাকে। তাই এই সকল স্টাইলে যত পারবেন কম যাবেন।

 (৭) ক্ষতিকর কেমিক্যাল ব্যবহার 

হেয়ার মাস্ক, সেরাম ইত্যাদি তো আমরা ব্যবহার করেই থাকি। কিন্তু এগুলোর ইনগ্রেডিয়েন্ট লিস্ট চেক করে নিচ্ছেন কি? ভালো ব্র্যান্ডের প্রোডাক্টগুলো কোয়ালিটি মেনটেইন করে, সেগুলো চুলের জন্য সেইফ। কিন্তু ফেইক, নিম্নমানের প্রোডাক্ট চুলের ক্ষতি করবে। চুলের যত্নে যতটা সম্ভব ন্যাচারাল উপাদান ব্যবহার করার চেষ্টা করুন। চুলের যত্নের ভুল এড়াতে এইদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।

 

(৮)  চিকন রাবার ব্যান্ড 

চুল বেঁধে রাখতে আমরা রাবার ব্যান্ড ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু এক্ষেত্রে একদম রাবারের তৈরী চিকন ব্যান্ডগুলো থেকে চুলকে দূরে রাখলেই ভালো। কারণ এসব ব্যান্ড চুলের স্বাস্থ্য এর জন্যে খুব একটা ভালো নয়। তাছাড়া, যখন ব্যান্ড চুল থেকে খুলতে যাবেন, তখন দেখবেন এই ব্যান্ডের সাথে অনেকগুলো চুল ছিঁড়ে চলে এসেছে। তাই কাপড় অথবা উলের তৈরী ব্যান্ডগুলো ব্যবহার করবেন। এটি চুলের যত্নে ভুল গুলোর মধ্যে অন্যতম।

জেনে নিলেন চুলের যত্নে ভুল সম্পর্কে। এইসব বিষয়গুলো লক্ষ্য রেখে চুলের যত্ন করলে সবধরনের ক্ষতি থেকে চুলকে রক্ষা করতে পারবেন। নিজের যত্ন নিন, ভালো থাকুন।

 

ছবি- সংগৃহীত: সাজগোজ

15 I like it
0 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...