৩ টি ন্যাচারাল হোমমেইড উপটান রেসিপি - Shajgoj  ৩ টি ন্যাচারাল হোমমেইড উপটান রেসিপি - Shajgoj

 ৩ টি ন্যাচারাল হোমমেইড উপটান রেসিপি

সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৮

উপটান ঐতিহ্যগতভাবে প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে তৈরি এবং  ত্বক পরিষ্কার এবং প্রদীপ্ত রাখার জন্য এর জনপ্রিয়তা অনেক। এটি ত্বককে ভেতর থেকে উজ্জ্বল ও কোমল করে তোলে এবং ত্বককে গভীর থেকে পরিষ্কার করে আরো আকর্ষণীয় করে তোলে। এটি মুখের অবাঞ্ছিত লোম দূর করতেও ব্যবহার করা হয়। উপটান প্রাকৃতিক উপাদানসমূহ দিয়ে তৈরি হয় বলে এর কোন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া ও লক্ষ্য করা যায় না। অনেকেই বাজার থেকে বিভিন্ন ধরনের উপটান প্যাক কিনে ব্যবহার করেন কিন্তু সেগুলোতে কখনো কখনো কেমিক্যাল দেয়া থাকে তাই সেগুলো ত্বকের উপকারের চাইতে ক্ষতি বেশি করে ফেলে। নানান গুণের উপটান যদি বিভিন্ন ন্যাচারাল উপাদান দিয়ে তৈরি করে ফেলা যায় তাহলে আর বাজারের উপটান ব্যবহার করতে হয় না এবং এর উপকারিতাটাও বেশি পাওয়া যায়। তাই আজ আপনাদের জন্য নিয়ে এলাম ৩ রকম হোমমেইড উপটানের রেসিপি। চলুন তবে দেখে নেই।

 

) বেসন কাঁচা দুধের উপটান

উপকরণ

  • বেসন- ৩ টেবিল চামচ
  • লেবুর রস- ১ চামচ
  • চন্দন গুঁড়া- ১ চামচ
  • হলুদ- খুব সামান্য
  • কাঁচা দুধ- ২ টেবিল চামচ
  • চালের গুঁড়া- ১ টেবিল চামচ
  • গোলাপ জল- ১ টেবিল চামচ

যেভাবে তৈরি ব্যবহার করবেন-

প্রথমে বেসন ও চালের গুঁড়া একটি চালনিতে চেলে নিন। এটা করলে এগুলোতে এক্সট্রা দানা বা ময়লা থাকলে বের হয়ে যাবে। তারপর এর সাথে যোগ করুন চন্দন ও হলুদের গুঁড়া। সবগুলো ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। এবার এতে দিন কাঁচা দুধ, গোলাপ জল ও লেবুর রস। সবকিছু ভালোভাবে মিশিয়ে একটা মসৃণ পেস্ট তৈরি করুন। আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী পরিমাণ কম বা বেশিও করে নিতে পারেন।

এবারে মিশ্রণটি আপনার মুখে, গলায় ও হাতে লাগিয়ে প্রায় ২৫-৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এই সময় আপনার চোখ বন্ধ করে দুটি কচি শসার স্লাইস চোখের উপর দিয়ে রেস্ট নিতে পারেন। প্যাক-টি ভালোভাবে শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন এবং নরম তোয়ালে দিয়ে মুখ, হাত মুছে ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন। এই প্যাক-টি ত্বকের মরা কোষ দূর করে ত্বককে শীতল করে এবং এতে থাকা চন্দন গুঁড়া ও কাচা দুধ ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে।

২) ওটস এবং মসুর ডালের উপটান

উপকরণ

  • ওটস – ১/২ কাপ
  • মসুর ডাল- ১ কাপ
  • চালের গুঁড়া- ১/৪ কাপ
  • আমন্ড ৮-৯ টি
  • হলুদ গুঁড়া- ১ চিমটি
  • গোলাপ জল- প্রয়োজনমত

যেভাবে তৈরি ব্যবহার করবেন

মসুর ডাল, ওটস ও আমন্ড আলাদা আলাদা ভাবে গ্রাইন্ড করে নিন। তারপর এগুলো একসাথে মিশিয়ে নিন এবং এগুলোর সাথে চালের গুঁড়া ও হলুদ যোগ করে একটু একটু করে গোলাপ জল মিশিয়ে বেশ মসৃণ একটা পেস্ট তৈরি করে নিন।  এবার এই প্যাক-টি মুখ, হাত ও গলায় লাগিয়ে রাখুন ১৫-২০ মিনিট। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন। ওটস ত্বক ভেতর থেকে পরিষ্কার করে ত্বকের কোমলতা বাড়িয়ে তোলে।

৩) বেসন ও লেবুর উপটান

উপকরণ-

  • বেসন- ১/২ কাপ
  • চালের গুঁড়া- ১/৪ কাপ
  • লেবুর রস- ১ টেবিল চামচ
  • চন্দন গুঁড়া- ১/৪ কাপ
  • মসুর ডালের গুঁড়া- ১/৪ কাপ
  • হলুদ গুঁড়া- ১ চিমটি
  • পানি- প্রয়োজনমত

যেভাবে তৈরি ও ব্যবহার করবেন-

প্রথমে বেসন, চালের গুঁড়া ও মসুর ডালের গুঁড়া একসাথে চেলে নিন। তারপর এর সাথে যোগ করুন চন্দন, হলুদের গুঁড়া ও লেবুর রস। এবার এতে অল্প অল্প করে পানি দিয়ে একটি মসৃণ পেস্ট তৈরি করুন। এই প্যাক-টি হাতে, গলায় ও মুখে লাগিয়ে রাখুন ২০-৩০ মিনিট। শুকিয়ে গেলে হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

খুবই সহজ কিছু উপাদান দিয়ে তৈরি এই উপটানগুলো ব্যবহারে কিছুদিনের মধ্যেই আপনার ত্বকের হারানো জৌলুস ফিরে আসবে। উপরের তিনটি উপটানের যেকোনো একটি ১-২ বার ব্যবহার করলে খুব দ্রুত উপকার পাবেন। ন্যাচারাল উপাদানে তৈরি এই উপটানগুলো ত্বককে মেরামত করে ও ত্বককে করে পুনরুজ্জীবিত।

 

লিখেছেন- নাইমা আক্তার

ছবি – স্টাইলক্রেজ.কম