১০ মিনিটেই মেকাপ! - Shajgoj ১০ মিনিটেই মেকাপ! - Shajgoj

১০ মিনিটেই মেকাপ!

ডিসেম্বর ৪, ২০১৭

কাল রাতে ঘুমাতে ঘুমাতে সারিকার একটু লেটই হয়ে গেছে। ফলাফল, সকালে উঠতে লেট হয়ে গেল। ওদিকে আবার অফিস আছে। একটু ফিটফাট না হয়ে গেলে কি চলে? কিন্তু সময় তো একদমই নেই হাতে। কি করা যায়!

হুম! এই গল্পটা মিলে যাবে আমাদের মধ্যে অনেকেরই সাথেই। মাঝে মাঝে হাতে একদমই সময় থাকে না মেকাপ করে ফিটফাট হয়ে যাওয়ার। তাই আজ জানাবো, কীভাবে চটজলদি ৫-১০ মিনিটেই মেকাপ করে রেডি হয়ে চলে যেতে পারবেন অফিস, ইউনিভার্সিটি।

আপনার যদি দেখা যায় প্রায় দিনই লেট হয়ে যাচ্ছে, তখন আপনি যেটা করতে পারেন, একটা “লেট মর্নিং মেকাপ ব্যাগ” রেডি রাখতে পারেন। যাতে থাকবে সকালবেলার সকল মেকাপ এসেনশিয়ালস। এতে করে সকালে তাড়াহুড়োরর মধ্যে এটা ওটা খুঁজতে গিয়ে টাইম নষ্ট হবে না।

সকালে যতই লেট হোক না কেন, অবশ্যই সানস্ক্রিন লাগাবেন। কারণ নিজের প্রটেকশন আগে। প্রাইমার স্কিপ করা যাবে না। যেহেতু সকাল বেলা আপনি হেভি মেকাপ নিবেন না, সেহেতু প্রাইমার ছাড়া মেকাপ কিন্তু বেশিক্ষণ লাস্টিং করবে না। তাই প্রাইমার কিন্তু মাস্ট।

সকালবেলা ফাউন্ডেশন নিয়ে ব্লেন্ড করার সময় নেই। চটজলদি বেছে নিন নিজের পছন্দের বিবি / সিসি ক্রিম। এগুলো হাত দিয়েই সহজে ব্লেন্ড করা যায়। তাই খুব দ্রুতই এই পার্টটা করা হয়ে যাবে। মুখে দাগ থাকলে এবার দাগের উপরে কনসিলার লাগিয়ে ফেলুন এবং ব্লেন্ড করে নিন।

এবার সবকিছু সেট করার পালা। এক্ষেত্রে আমি বলবো একটু কভারেজওয়ালা পাউডার নিতে। যেহেতু বেইজটা আমরা খুব হালকা করছি, তাই পাউডারে যদি একটু কভারেজ থাকে, তবে ভালো হয়। পাউডার দিয়ে পুরো মুখ সেট করে নিন এবং পাউডারটা ব্যাগে রেখে দিন। পরে টাচ আপে কাজে লাগবে।

আইব্রো টা আঁকার সময় না থাকলে ব্যবহার করুন কোনো পিগমেন্টেড আইব্রো সেটিং জেল। যেগুলো আমরা আইব্রো সেট করার জন্য ব্যবহার করে থাকি। এমন কিছু আইব্রো জেল আছে, যেগুলোতে কালার থাকে। এই ধরনের আইব্রো জেল দিয়ে আইব্রো ব্রাশ করে নিন। আইব্রো গুলো সেটও থাকবে এবং সুন্দর একটি ন্যাচারাল কালার ও আসবে। সময় ও কম লাগলো।

আই মেকাপ টা না হয় আজ বাদ ই দিলেন। তবে চাইলে যে কোনো ডার্ক ব্রাউন আইশ্যাডো নিয়ে চোখের পাতার ল্যাশ লাইনের দিকে নিয়ে স্মাজ করে নিন। তবে খুব বেশি কালার ব্যবহার করবেন না। তাতে বাজে লাগতে পারে। এরপর মাশাকারা লাগিয়ে নিলেই চটজলদি চোখ দুটো কিন্তু সুন্দর লাগবে লাইনার এবং কাজল ছাড়াই।

এরপর একে একে চিকবোনের নিচে, নাকে, কপালে কন্ট্যুরিং, গালে হালকা ব্লাশ এবং ফেইস এর হাইয়েস্ট পয়েন্ট গুলোতে হাইলাইটার লাগিয়ে নিবেন। সবশেষে লিপস্টিক লাগাবেন নিজের পছন্দসই। আর মেকাপ টা লক করার জন্যে সেটিং স্প্রে। ব্যস। আপনার মেকাপ কমপ্লিট।

লিখেছেন – জান্নাতুল মৌ