সহজেই দাগমুক্ত ত্বক - Shajgoj

সহজেই দাগমুক্ত ত্বক

দাগমুক্ত নিখুঁত ত্বক, কার না পছন্দ? কিন্তু ব্রণের কারণে কম বেশি অনেকের মুখেই দাগ পড়ে যায়। ব্রণ সেরে গেলেও অনেক ক্ষেত্রে দাগ থেকে যায়। দাগের কারণে বাইরে বের হলে অস্বস্তিবোধ হয়। আসুন জেনে নিই, মুখের বিরক্তিকর দাগের সহজ সমাধান। খুব কম সময়ে আর অল্প পরিশ্রমেই আপনি পেতে পারেন দাগমুক্ত পরিষ্কার ত্বক। এজন্য আপনি ব্যবহার করতে পারেন প্রাকৃতিক উপাদানে তৈরী একটি ফেসপ্যাক। এখন চলুন জেনে নিই কী কী লাগছে এই ফেসপ্যাকে-

উপাদানঃ

১। চন্দন কাঠের গুঁড়া (২ টেবিল চামচ বা তার সমপরিমাণ) ও

২। লবঙ্গ গুঁড়া ( ১/২ চা চামচ বা তার সমপরিমাণ) ।

প্রণালীঃ

১। প্রথমে লবঙ্গ পাতলা সুতি কাপড় দিয়ে পরিষ্কার করে নিন। তারপর শিলপাটায় মিহি করে গুঁড়ো করে নিন। শিলপাটার স্থলে ব্লেন্ডার ব্যবহার করতে পারেন। গুঁড়ো করার পর চালনি দিয়ে চেলে নিন। এতে লবঙ্গ গুঁড়াতে বড় কোনো দানা থাকলে আলাদা হয়ে যাবে।

২। এরপর একটি পরিষ্কার বাটিতে ২ টেবিল চামচ চন্দন গুঁড়া নিয়ে তাতে ১/২ চা চামচ লবঙ্গ গুঁড়া মিশান। অণুপাত ঠিক রেখে এগুলোর পরিমাণ বাড়াতে কিংবা কমাতে পারেন।

৩। তারপর এতে পানি দিয়ে ভালোভাবে মেশান। পানির ক্ষেত্রে ফুটানো পানি ব্যবহার করুন। পানির পরিমাণ এমন হবে যাতে প্যাকটি অধিক ঘন হবে না আর অধিক পাতলাও হবে না। মেশানো হয়ে গেলে তা কিছুক্ষণ রেখে দিন (প্রায় ৮ থেকে ১০ মিনিট)।

৪। আপনার পছন্দসই কোনো ভালো ব্রান্ডের ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। তোয়ালে দিয়ে মুখ মুছে নিন। তারপর আস্তে আস্তে ফেসপ্যাকটি মুখে লাগান।

৫। ২০ মিনিট পর পানির ঝাপটায় মুখ ধুয়ে ফেলুন। কোনো ভালো ব্রান্ডের ময়েশ্চারাইজার লাগান।

৬। শুষ্ক ত্বকের অধিকারীদের এই প্যাকটি ব্যবহারে ত্বক আরো শুষ্ক হয়ে পড়তে পারে। সেক্ষেত্রে মিশ্রণে ২/৩ ফোঁটা জলপাই তেল কিংবা নারিকেল তেল দিয়ে নিতে পারেন।

এভাবে সপ্তাহে ২ বার ফেসপ্যাকটি ব্যবহার করতে পারেন।

ফলাফলঃ

এক সপ্তাহের মধ্যেই দাগ অনেকটা কমে আসবে। প্যাকটি আপনার ত্বকের সাথে মানিয়ে গেলে, সঠিক পদ্ধতিতে নিয়মিত ব্যবহারে ভালো ফল পাবেন।

টিপসঃ

১। অনেক ক্ষেত্রে লবঙ্গের কারণে ফেসপ্যাকটি মুখে লাগানোর পরে মুখ জ্বলতে পারে। এতে ভয় পাওয়ার কিছু নেই। কিছুক্ষণের মধ্যেই জ্বলা কমে যাবে এবং কোনো ক্ষতিও হবে না।

২। প্যাকটি সপ্তাহে ২ থেকে ৩ বারের বেশি কোনোভাবেই ব্যবহার করবেন না।

৩। রাতে ঘুমানোর আগে ব্যবহারে বেশি উপকার পাবেন।

৪। প্যাক ব্যবহারের পাশাপাশি প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুন।

৫। যতটা সম্ভব ভাজা পোড়া জাতীয় খাবার খাওয়া থেকে দূরে থাকুন।

সাবধানতাঃ

১। প্যাক মুখে লাগানোর সময় ঘষে লাগাবেন না বা ম্যাসাজ করবেন না, এতে মুখে আচঁড় পড়তে পারে।

২। চন্দন কিংবা লবঙ্গে এলার্জি থাকলে, এই প্যাকটি ব্যবহার করবেন না।

৩। কিছুদিন ব্যবহারের পর, কোনো ধরনের প্রতিক্রিয়া বা সমস্যা অনুভূত হলে, ব্যবহার করা বন্ধ করুন।

লিখেছেনঃ  নীল

ছবিঃ বিউটিফুলফ্রিওয়ালপেপার্স.ব্লগস্পট.কম

1 I like it
0 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...