কর্মক্ষেত্রে অ্যাসিডিটির কারণ ও সমাধান


আমাদের মধ্যে এমন অনেকেই আছেন যারা ঘণ্টার পর ঘণ্টা অফিসে চেয়ারে বসে কাজ করেন। এর ফলে তাঁদের বিভিন্ন শারীরিক সমস্যা দেখা দেয়, অ্যাসিডিটি তার মধ্যে একটি। অ্যাসিডিটি বলতে পাকস্থলি বা অন্ত্রের ক্ষত বা ঘাকে বোঝানো হয় যা সাধারণত পাকস্থলি হতে অ্যাসিড নিঃসরণের মাত্রা বেড়ে যাওয়ার কারণে হয়। এটা আসলে কোন রোগ না। এটা সাধারণত কিছু বদভ্যাসের কারণে হয়ে থাকে। তবে অন্য যেকোন রোগের চেয়েও এটা মাঝে মাঝে খারাপ আকার ধারণ করতে পারে। তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক কর্মক্ষেত্রে অ্যাসিডিটির কারণ ও এর সমাধানের উপায় সম্পর্কে।

 

কর্মক্ষেত্রে অ্যাসিডিটি-এর কারণ

  • কর্মক্ষেত্রে একই জায়গায় দীর্ঘ সময় ধরে বসে থাকা এবং চলাফেরার অভাব অ্যাসিডিটির মূল কারণগুলোর একটি।
  • কর্মক্ষেত্রে নিয়মিত ফাস্টফুড ও রাস্তার খাবার খাওয়ার অভ্যাস অ্যাসিডিটি-এর অন্যতম কারণ।
  • অনেকেরই একটা বাজে অভ্যাস থাকে, সকাল বেলার নাস্তা না করে সারাদিন কাজ করা। সাধারণত চার ঘণ্টার বেশি সময় ধরে পেট যদি খালি থাকে তাহলে তা অ্যাসিডিটি ঘটায়।
  • অনেকেই খাবার শেষ করার সাথে সাথেই আবার কাজ করা শুরু করেন। এর ফলে যে খাবার খাওয়া হয় সেগুলো ভালভাবে হজম হতে পারে না। ফলে হজমক্রিয়া সঠিকভাবে হয় না এবং তা অ্যাসিডিটি সৃষ্টির কারণ হয়।
  • সাধারণত ভাঁজা-পোড়া ও মসলাজাতীয় খাবার বেশি খেলে তা পেটে অ্যাসিডিটি-এর সৃষ্টি করে।
  • কর্মক্ষেত্রে থাকাকালীন অতিমাত্রায় চা বা কফি পান অ্যাসিডিটি-এর অন্যতম কারণ।
  • কর্মক্ষেত্রে অতিমাত্রায় কোমল পানীয় ও অ্যালকোহল পান করার ফলেও আমাদের শরীরে অ্যাসিডিটি হয়।
  • ধূমপানের কারণেও অ্যাসিডিটি হয়।

কর্মক্ষেত্রে অ্যাসিডিটি সমস্যা সমাধানের উপায়

  • যেহেতু কর্মক্ষেত্রে একই জায়গায় দীর্ঘ সময় ধরে বসে থাকতে হয়, তাই কাজের ফাঁকে ফাঁকে মাঝে মাঝে দাঁড়ান।
  • কর্মক্ষেত্রে অ্যাসিডিটি-এর আরেকটি বড় কারণ হচ্ছে হাঁটাহাটির অভাব, তাই অফিসে প্রতি ৩০ মিনিট অন্তর হাঁটাহাটি করার অভ্যাস তৈরি করুন যা আপনার অ্যাসিডিটি-এর সমস্যা সমাধানে সহায়ক হবে।
  • অফিসের লিফট ব্যবহার না করে সিড়ি দিয়ে নামার অভ্যাস গড়ে তুলুন।
  • অফিসে যখনই আপনার পানির পিপাসা পাবে অফিস বয়-কে না বলে সবসময় নিজে গিয়ে পানি আনার চেষ্টা করুন। এতে আপনার হাঁটাচলার কাজটাও হয়ে যাবে।
  • অফিসে যদি অনেকগুলো ওয়াশরুম থাকে তাহলে ওয়াশরুম ব্যবহার করার সময় সবচেয়ে দূরের ওয়াশরুম-টি ব্যবহার করবেন। এতেও আপনার হাঁটাচলার কাজটা হয়ে যাবে।
  • কর্মক্ষেত্রে আমরা যখন মোবাইলে কথা বলি তখন বসেই কথা বলা সাধারণত আমাদের অভ্যাস। কিন্তু অ্যাসিডিটি প্রতিরোধ করতে হলে সবসময় দাঁড়িয়ে মোবাইলে কথা বলার অভ্যাস করতে হবে।
  • সহকর্মীদের সাথে মোবাইল-এ বা ইমেইল-এ যোগযোগ না করে স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে তাদের সাথে যোগযোগ করুন।
  • অফিসে আপনার ডেক্স-টি এমনভাবে স্থাপন করুন যাতে করে ক্লায়েন্ট-এর সাথে দাঁড়িয়ে কাজ করতে পারেন।
  • খাবার শেষ করার সাথে সাথেই আবার কাজ করা শুরু না করে কিছুক্ষণ হাঁটুন।
  • অফিসে ফাস্টফুড, রাস্তার খাবার, ভাঁজা-পোড়া, মসলাজাতীয় খাবার, চা ও কফি পান, কোমল পানীয় ও অ্যালকোহল পান এবং ধূমপান করা থেকে বিরত থাকুন।

 

লিখেছেন- হসিয়া খংপডা