চুলের যত্ন, সম্পাদকের পছন্দ, সৌন্দর্য পরামর্শ

মজবুত চুলের জন্য নারকেল তেলের ৪ টি মাস্ক

নারকেল তেল চুলের জন্য একটি অসাধারণ উপাদান। এটি চুলের জন্য সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত ন্যাচারাল বিউটি প্রোডাক্ট। কারণ এতে আছে লিনোলিক এবং লওরিক এসিড-এর মত ফ্যাটি এসিড যা আপনার চুল এবং মাথার ত্বক দুটোর জন্যই সমানভাবে উপকারী।

আপনাদের জন্য আজ রইলো ৪ টি অসাধারণ এবং খুবই সহজ নারকেল তেলের হেয়ার মাস্ক যা ব্যবহারে আপনার চুল খুব দ্রুত লম্বা এবং চুলের গোড়া খুব মজবুত হবে, তার সাথে হবে সিল্কি এবং শাইনি। তাহলে চলুন দেখে নেই হেয়ার মাস্ক-গুলোর রেসিপি।

 

১. নারকেল তেল ও মধুর মাস্ক

মধু একটি আশ্চর্যজনক প্রাকৃতিক উপাদান। এটা শুধু খেতেই অসাধারণ স্বাদের তা নয়, এটি চুলের মেয়েশ্চার বজায় রেখে চুল পড়া প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে খুব সহজে। এটি একটি প্রাকৃতিক এমোলিয়েন্ট যা চুল মসৃণ এবং শাইনি করে তোলে।

মাস্ক-টি তৈরিতে যা লাগবে-

  • নারকেল তেল- ১ টেবিল চামচ
  • প্রাকৃতিক মধু- ১ টেবিল চামচ

এই দুটি উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে আপনার চুলে এবং স্ক্যাল্প-এ এপ্লাই করুন। তারপর একটি শাওয়ার ক্যাপ দিয়ে চুল ঢেকে রাখুন ২০ মিঃ। ২০ মিঃ পর এটি শুকিয়ে গেলে হালকা গরম পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। একবার ব্যবহারেই দেখবেন আপনার চুল কেমন ঝলমল করছে। সব ধরনের চুলের জন্য এই হেয়ার মাস্ক-টি উপযোগী। মাসে ২-৩ বার মাস্ক-টি চুলে লাগাতে পারেন।

২. অ্যাভোক্যাডো এবং ডিমের মাস্ক

অ্যাভোক্যাডো খেতে খুবই সুস্বাদু এবং এতে আছে আশ্চর্যজনক কিছু বৈশিষ্ট্য যা চুলের জন্য অসাধারণ পুষ্টিকর উপাদান আর ডিমে আছে ভিটামিন এ, ডি ও ই, বিভিন্ন প্রোটিন এবং ফ্যাটি অ্যাসিড। এসব উপাদান চুলের উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনতে এবং চুলের গোড়া মজবুত করতে অত্যন্ত কার্যকরী।

মাস্ক তৈরিতে যা যা লাগবে-

  • ১ টি অ্যাভোক্যাডো
  • ২ টি ডিম
  • ১ টেবিল চামচ মধু
  • ১ টেবিল চামচ নারকেল তেল

এই সবগুলো উপকরণ একটি বোলে মেশান। ভালোভাবে মেশানো হয়ে গেলে আপনার চুলের গোড়া থেকে আগা পর্যন্ত আঙুল দিয়ে ম্যাসেজ করে করে লাগান। তারপর ২০-২৫ মিনিট রেখে শুকিয়ে যাওয়ার পর হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। মাসে ৩-৪ বার ব্যবহার করুন। ড্রাই হেয়ার-এর জন্য এই মাস্ক-টি ম্যাজিক-এর মত কাজ করে।

৩. ডিম, নারকেল তেল ও অলিভ অয়েলের মাস্ক

এই মাস্ক-টিতে শুধুমাত্র ডিমই নয়, এছাড়াও রয়েছে অলিভ অয়েল যা আপনার চুলের জন্য খুবই উপকারী। ডিমের উপকারিতার কথা তো আগেই বলেছি। আর এক্সট্রা ভার্জিন অলিভ অয়েল চুলের জন্য প্রাকৃতিক কন্ডিশনার হিসেবে কাজ করে এবং চুলকে করে তোলে গোড়া থেকে মজবুত।

মাস্ক-টি তৈরিতে যা লাগবে-

  • ১ টা ডিম
  • ১ টেবিল চামচ নারকেল তেল
  • ১ চা চামচ লেবুর রস
  • এক্সট্রা ভার্জিন অলিভ অয়েল ১ টেবিল চামচ

উপরের সব গুলো উপকরণ ভালো ভাবে মিশিয়ে চুলে অল্প অল্প করে লাগান এবং ম্যাসেজ করতে থাকুন। ১৫-২০ মিঃপর হালকা গরম পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। অতিরিক্ত রুক্ষ ও শুষ্ক চুলের জন্য কার্যকরী একটি প্যাক এটি। মাসে ২ বার এটি ব্যবহার করুন।

৪. স্ট্রবেরি ও নারকেল তেলের মাস্ক

স্ট্রবেরি একটি দারুণ মজাদার ফল যেটিতে আছে প্রচুর ভিটামিন এবং ফ্যাটি এসিড যা চুলের জন্য অসাধারণভাবে কার্যকরী।

মাস্ক-টি তৈরিতে যা লাগবে-

  • ৬ টি ফ্রেস স্ট্রবেরি
  • ১ টেবিল চামচ নারকেল তেল
  • ১ টেবিল চামচ মধু

স্ট্রবেরিগুলো ভালো করে ধুয়ে ম্যাশ করে নিয়ে তেল ও মধুর সাথে মিশিয়ে নিন। তারপর চুলের উপর এবং স্কাল্পে ভালো করে লাগিয়ে ১০-১৫ মিঃ অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলুন। এই মাস্ক-টি মূলত অয়েলি হেয়ার-এর জন্য। তবে নরমাল চুলের যত্নেও ব্যবহার করা যাবে। মাসে ২ বার এই মাস্ক-টি ব্যবহার করতে পারেন।

চুলের সুস্থতার জন্য শুধু মাস্ক ব্যবহার করলেই হবে না কিন্তু, তার সাথে খেতে হবে পুষ্টিকর খাবারও। আর চুল মজবুত রাখতে সপ্তাহে অন্তত ৩ বার চুল ভালো ভাবে পরিষ্কার করুন এবং চুলে ব্যবহার করুন এক্সট্রা ভার্জিন নারকেল তেল। চুলের যত্ন নিন। ভালো থাকুন সবাই।

 

লিখেছেন- নাইমা আক্তার

Comments

comments

Recommended