ত্বকের যত্ন, সম্পাদকের পছন্দ, সৌন্দর্য পরামর্শ

কনুই ও হাটুর কালো দাগ ও খসখসে ভাব দূর করতে ৪ টি কার্যকরী প্যাক

ত্বকের যত্ন নেয়ার কথা ভাবলেই আমরা প্রধানত মুখের যত্নের কথা ভাবি। এমনকি এটাও মনে করি যে শুধু ফেস সুন্দর মানেই সব সুন্দর। আসলেই কি তাই? আপনার কনুই, হাটু ইত্যাদি অংশ গুলো যদি যত্নের অভাবে দিনের পর দিন খসখসে ও কালো হয়ে যায়, তাহলে কি ভালো লাগবে আপনার? শরীরের এই  অংশগুলো আমাদের অবহেলার কারণে কালো হয়ে ছোপ ছোপ দাগ পড়ে যায় এবং খসখসে অনুভব হয়।

তাই আজ আপনাদের জন্য থাকলো কনুই এবং হাটুর কালো ও খসখসে ভাব দূর করার কার্যকর ৪ টি প্যাক। চলুন প্যাকগুলো দেখে নেই।

(১) ভিটামিন-ই অয়েল

৩-৪ টি ভিটামিন-ই ক্যাপসুল থেকে এর ভেতরের তেলটা বের করে নিন। এবার এটি আপনার কনুই এবং হাটুর চামড়ায় ব্যবহার করুন বা এটি চামড়ার উপর ঘষে ঘষে প্রয়োগ করুন। চাইলে এর সাথে চিনি মিশিয়ে নিতে পারেন।  এটি ময়েশ্চারাইজিং এর কাজ করবে এবং এতে রয়েছে শক্তিশালী অ্যান্টি-অক্সিডেন্টসমূহ যা ক্ষতিগ্রস্ত চামড়া রিপেয়ার করে এবং ক্ষতিগ্রস্ত টিস্যুগুলো উন্নত করতে সাহায্য করে খুব দ্রুত।

(২) কোকোয়া বাটার

আপনার হাটু এবং কনুই এর ত্বকে বিশুদ্ধ কোকোয়া বাটার ব্যবহার করুন অথবা কোকোয়া বাটার সমৃদ্ধ  লোশন ইউজ করুন। এটা আপনি যদি ক্ষতিগ্রস্ত স্কিনে দিনে অন্তত ৩ বার ব্যবহার করেন তাহলে ভালো ফল পাবেন।

(৩) লেবুর রস

লেবুর রস হাটু ও কনুই এর কালো দাগ সাড়াতে খুবই কার্যকর একটি উপাদান। এটি একটি ন্যাচারাল ব্লিচিং উপাদান। এছাড়াও লেবুর রস ক্ষতিগ্রস্ত চামড়া এক্সফ্লয়েট করে এবং চামড়া রিপেয়ার করতে সাহায্য করে । যাই হোক, আপনি ১ টে.চা. লেবুর রসের সাথে ১ টে.চা. মধু মিশিয়ে ব্যবহার করতে পারেন প্রতি সপ্তাহে ৩ বার। নিয়মিত ব্যবহার করলে দ্রুত রেজাল্ট পাবেন।

(৪) কফি পাউডার

কফি ত্বকের হারানো উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনতে অসাধারণ ক্ষমতা রাখে। আর তাই  কাঁচা দুধ অথবা পানির সাথে কফি পাউডার মিশিয়ে সপ্তাহে ৩ দিন আপনার কনুই বা হাটুতে ব্যবহার করুন। দ্রুত ফলাফল পেতে ২-৩ সপ্তাহ নিয়মিত ব্যবহার করুন।

ফ্যাশন সচেতন নারীদের জন্য কনুই এবং হাটুর বিশ্রী দাগ খুবই চিন্তার ব্যাপার।  তাই আর দেরি না করে আজ থেকেই প্যাকগুলো ব্যবহার করা শুরু করে দিন। রেগ্যুলার ব্যবহারের ফলে আপনার ত্বকের ন্যাচারাল কালার ফিরে আসতে বাধ্য হবে।

 

 

লিখেছেন- নাইমা আক্তার

Comments

comments

Recommended