ত্বক, প্রসাধনী সম্পর্কে, মেকাপ, সৌন্দর্য পরামর্শ

সামারে গ্ল্যাম মেকআপ লুক

ভীষণ গরম পড়েছে কিন্তু, তাই না? এই গরমেও কিন্তু দাওয়াত, গেট টুগেদার থাকেই। আর সাজগোজ ও নিশ্চয়ই করা হয়। কিন্তু ভয় পাচ্ছেন এই গরমে কিভাবে সাজবেন? মেকআপ টা কিরকম হওয়া চাই? গার্নিয়ার লাভার্সদের জন্য মেকআপ আর্টিস্ট মনামী এলাহী খুব সুন্দর আর গ্ল্যামারাস একটা মেকআপ লুক মডেল আনুশকার উপরে, যেটা যেকোন আউটফিটের সাথেই ভালো লাগবে।

  • যেকোন মেকআপ শুরু করার আগে প্রথম শর্ত হচ্ছে মুখ পরিষ্কার থাকা। আর এজন্য মডেল গার্নিয়ার লাইট কমপ্লিট হোয়াইট স্পিড ফেইসওয়াশ দিয়েমুখটা ভালো করে ধুয়ে নিয়েছেন। এরপর স্ক্রাবিং করে নিলে আরো ভালো। স্ক্রাবিং করলে স্কিনের উপরের লেয়ারের ডেডসেলস দূর হয়, আর মেকআপ টাও স্কিনে সুন্দরভাবে বসে।
  • এর পরের স্টেপ হচ্ছে ময়েশ্চারাইজার অ্যাপ্লাই করা। মনামী তার মডেলের মুখে গার্নিয়ার লাইট কমপ্লিট ময়েশ্চারাইজার অ্যাপ্লাই করে নিয়েছেন। এর নিয়মিত ব্যবহারে এটা স্কিনের ডালনেস কমাতে সাহায্য করে। সেই সাথে ধীরে ধীরে স্কিনের বিভিন্ন দাগ আর অসামঞ্জস্যতাকে দূর করে স্কিনকে একটা ইভেন টোন দিতে সাহায্য করে। আর এতে থাকা এসপিএফ (এসপিএফ ১৯) সূর্যের ক্ষতিকারক ইউভিএ আর ইউভিবি রশ্মি থেকে ত্বককে রক্ষা করে।

  • এবার মেকআপ শুরু করার পালা। মনামী সবার আগে মডেলের আইব্রো টা এঁকে নিয়েছেন, একটা অ্যাংগেলড আইব্রো ব্রাশ আর টিন্টের সাহায্যে। আপনারা চাইলে ভালো কোন আইব্রো পেন্সিল ও ইউজ করতে পারেন। তারপর আইব্রো জেল দিয়ে সেট করে নিতে পারেন। ভ্রু জোড়া সুন্দর হলে কিন্তু চোখ অনেক বেশি আকর্ষণীয় লাগে।
  • ভ্রু এর আশেপাশে কন্সিলার দিয়ে নেয়া হলো।
  • এবং চোখের উপরেও কন্সিলার দিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করে নিন। আর সেটা সেটিং পাউডার দিয়ে সেট করে নিন।
  • এবার পালা আই মেকআপ এর। ক্রিজে সবার আগে একটা লাইট ব্রাউন শেইড ট্রান্সিশন কালার হিসেবে অ্যাপ্লাই করা হলো। তারপর পুরো চোখে গ্লিটার গোল্ডেন শ্যাডো অ্যাপ্লাই করা হলো। তারপর আইলাইনার আর মাস্কারা লাগিয়ে আই মেকআপ কমপ্লিট করা হলো।
  • এবার শুরু হলো ফেইস মেকআপ। সবার আগে স্কিনের রোমকূপগুলোকে ভিজ্যুয়ালি মিনিমাইজড দেখানোর জন্য একটা প্রাইমার অ্যাপ্লাই করা হলো।
  • তারপর অল্প অল্প করে ফাউন্ডেশন নিয়ে একটা ফাউন্ডেশন ব্রাশের সাহায্যে পুরো ফেইসে ফাউন্ডেশন অ্যাপ্লাই করে নেয়া হলো।
  • চোখের নিচে, নাকের উপরে, জ লাইনের উপরে, কপালের সামনের অংশে ফাউন্ডেশনের শেইডের চেয়ে দু শেইড হালকা রঙের কন্সিলার অ্যাপ্লাই করে নেয়া হলো। ফাউন্ডেশন ব্রাশের সাহায্যে ভালোভাবে ব্লেন্ড করে নেয়া হলো।
  • চোখের নিচের অংশে ব্রাউন আইশ্যাডো দিয়ে ভালোভাবে ব্লেন্ডিং ব্রাশের সাহায্যে স্মোক আউট করে নেয়া হলো।
  • পুরো ফেইস লুজ পাউডার আর ব্রাশের সাহায্যে সেট করে নেয়া হলো।
  • এবার একটা উজ্জ্বল গাড় লাল রঙের লিপস্টিক দেয়া হলো ঠোঁটে।
  • সবশেষে মেকআপ সেটিং স্প্রে দিয়ে পুরো ফেইসের মেকআপ টাকে ভালো করে সেট করে ফেলা হলো।

সবশেষে একটা কথা ই আবারও বলবো। সাজগোজ করাটা যতটা জরুরি, সঠিক নিয়মে ত্বকের যত্ন নেয়াটা তার চেয়েও বেশি জরুরি। আপনার স্কিন সুন্দর হলে তবেই না সাজগোজে আপনাকে আরও সুন্দর লাগবে, তাই না? তাই নিয়মিত ক্লেঞ্জিং, টোনিং আর ময়েশ্চারাইজিং এর অভ্যাস গড়ে তুলুন। আর গার্নিয়ারের প্রোডাক্ট বরাবরই বাজেট ফ্রেন্ডলি, এবং সব জায়গায় অ্যাভেইলেবল। কাজেই যারা ভাবছেন স্কিনকেয়ার মানেই রাজ্যের খরচ, তাদের ধারণাটি কিন্তু একদম ভুল। সৌন্দর্যের শুরু ভিতর থেকেই। তাই রেগুলার দুবেলা ফেইসওয়াশ দিয়ে মুখ ধোয়া, ময়েশ্চারাইজার ব্যবহারের অভ্যাস গড়ে তুলুন।

 

এই গরমেও থাকুন সবসময় গর্জিয়াস।

Take Care.

লিখেছেন : ফারহানা প্রীতি

Comments

comments

Recommended