ত্বক, ত্বকের যত্ন, প্রসাধনী সম্পর্কে, সম্পাদকের পছন্দ, সৌন্দর্য পরামর্শ

গ্রীষ্মের সানস্ক্রিন সাজেশনস

জনতার দাবি!

প্রতি লেখায় জোর গলায় সানস্ক্রিনের উপকারিতা , না মাখলে কি হবে হেন তেন চিৎকার করে সবার কান ঝালাপালা করি… অবভিয়াসলি সেই সব লেখায় ৯৯% কমেন্ট থাকে-

“কিন্তু আমি তো সানস্ক্রিন মাখলেই ঘেমে যাই, কোনটা ভালো? কি ইউজ করব? প্রোডাক্টের নাম বলুন।” 

এখানে একটা পয়েন্ট আগেই মাথায় নিয়ে নিন- সানস্ক্রিন মাখলে কেউ “কালো” হয়ে যায় না। ঘেমে যাচ্ছেন? সেতো কড়া রোদে মেকআপ দিয়ে ঘুরলেও ঘামবেন।গরমে এদেশে মানুষ ঘামে- জেনারেল নলেজ! কিন্তু যেহেতু মানুষের নিজের ভবিষ্যৎ স্কিন হেলথ সম্পর্কে চিন্তা কম! তারা দুই “ঘাম উৎপাদকের” ভেতরে মেকআপ অথবা কিছু “they who must not be named” ব্র্যান্ডের ক্রিমই দিনের পর দিন মেখে রোদে ঘুরে বেড়াবেন, হ্যাঁ কালো হবেন , রিঙ্কেল বানাবেন, মেকআপ গলে গলে পড়াটাকেও মেনে নেবেন। তারপরেও সব এলারজি হবে শুধু এক সানস্ক্রিনের বেলায়…!

প্লিজ, নতুন একটা অজুহাত খুঁজে বের করুন, কারন বাজারে এমন অনেক সানস্ক্রিন আছে যা আপনার প্রিয় ময়েশ্চারাইজারের চেয়েও লাইট , আরামদায়ক এবং স্কিনের জন্য সেফ… তাই এক্সপায়ারড, ইলিগাল চাইনিজ কসমেটিক্স,পাকিস্তানি ফর্সা ক্রিম, নকল লিপস্টিক ইউজ করলেও যাদের “কিচ্ছুটি হয় না” কিন্তু, এক ফোঁটা সানস্ক্রিন ছুঁলেই ‘ইমারজেন্সি লাইফ সাপোর্ট’ নেবার মতো অবস্থা হয়, তাদের হেল্প করা আমার সাধ্যের বাইরে… কিন্তু, যারা সিরিয়াসলি ভালো কিছু প্রোডাক্টের পেছনে ইনভেস্ট করে নিজের মূল্যবান চামড়াটা রক্ষা করতে সত্যিই ইচ্ছুক- তাদের জন্যই এই লেখা।

আমার ইউজ করা সামার সহ সারাবছরের জন্য উপযোগী বেস্ট কয়েকটা সানস্ক্রিন।

** আমার ত্বক প্রচণ্ড অয়েলি, সেনসিটিভ এবং একনে প্রন। আর সানস্ক্রিন যেহেতু রোজকার প্রয়োজন, অনেক দামি কিছু হলেও সেটা ইউজ করা মুশকিল! তাই এসব মাথায় রেখেই আমি প্রোডাক্ট খুঁজি। নিচের প্রোডাক্টগুলো যাদের স্কিন আমার মতই তাদের জন্য বেশ হেল্পফুল হবে বলে আমার ধারণা।

 

(১) NEUTROGENA Ultra Sheer Dry-Touch Sunscreen Broad Spectrum SPF 45

– নিউট্রোজিনা আলট্রা শিয়ার ড্রাই টাচ সানস্ক্রিন

দামঃ ১১ ডলারের মতো। যেকোনো পেজ বা শপ থেকে কিনলে ১৫০০ এর মতো লাগবে। কখনো কখনো আলটা সেলে/ ব্ল্যাক ফ্রাইডে সেলে একটা কিনলে একটা ফ্রি অফারে পাওয়া যায়। এই চান্সে স্টক করে রাখা বেটার।

এই মুহূর্তে এটা প্রায় বাংলাদেশের জাতীয় সানস্ক্রিন। শুধু আমিই নই, আমার পরিচিত অনেকেই এটা ইউজ করেন। ফিজিক্যাল আর কেমিক্যাল সানস্ক্রিনের অসাধারণ একটা কম্বিনেশন এই নিউট্রোজিনা সানস্ক্রিন। টেক্সচার খুবই লাইট। গার্নিয়ার বা পণ্ডস ময়েশ্চারাইজার থেকেও লাইট, স্কিন অতিরিক্ত অয়েলি করে না, একেবারে গ্রে একটা লেয়ার ফেলে রাখে না। খুব তাড়াতাড়ি এবসরবড হয়ে যায় স্কিনে।বেজ মেকআপের নিচেও খুব ইজিলি অ্যাপ্লাই করা যায়। আমি এটার ২ টিউব ইউজ করেছি, তাই নিশ্চিত বলতে পারি যে এই সানস্ক্রিনের কারণে আমার কোন র‍্যাশ বা ব্রনের সমস্যা হয় নি।

সবচেয়ে ভালো দিক কোনটা? এটা খুবই ইজিলি এভেইলেবল। স্যাফায়ারে তো সবসময়ই স্টকে থাকে প্রায়। তাই দেশের যেকোনো প্রান্ত থেকে খুব সহজে আপনি একটা ভালো প্রোডাক্ট কালেক্ট করতে পারবেন।

পপুলার প্রোডাক্টের একটা বিড়ম্বনা হচ্ছে প্রচুর নকল মার্কেটে থাকা। অনেকেই ৪০০-৫০০ টাকায় এই সানস্ক্রিন কিনেছেন বলে দাবি করেন। এই দামে এই প্রোডাক্ট কেনা সম্ভব নয়। তাই একটু বুদ্ধি খাটিয়ে নকল এড়িয়ে চলার ট্রাই করবেন প্লিজ।

 

(২) Banana Boat Natural Reflect Baby Sunscreen Lotion SPF 50+

– ব্যানানা বোট ন্যাচারাল রিফ্লেকট বেবি সানস্ক্রিন

দামঃ ৯ ডলারের মতো পড়বে। ফারমাসি থেকে যেবার কিনেছিলাম দাম ১৫০০ এর বেশি নিয়েছিল। প্রি-অর্ডার করলে দাম কম পড়বে।

যাদের ছোট বাচ্চা বাইরে খেলে তারাও এই প্রোডাক্টের বেনিফিট পাবেন। আমি ঢাকার বেশ কিছু পপুলার ফার্মেসীতে এটা দেখেছি। এই পারটিকুলার প্রোডাক্ট স্কিন ক্যান্সার এসোসিয়েশন থেকেও সাজেস্ট করা হয়। সো সেফটি আর পারফরমেন্স নিয়ে কোন প্রশ্ন তোলার অবকাশ নেই!

কিন্তু, সহজে ঢাকা বা দেশের দোকান গুলোতে পাবেন না। এই অসাধারন প্রোডাক্ট এখনও তেমন জনপ্রিয় হয়নি এদেশে। যদিও এর দাম নিউট্রোজিনার চেয়ে কম।

টেক্সচার নিউট্রোজিনার চেয়ে একটু লাইট। বেশি নয়। এই প্রোডাক্ট স্পেসিফিকালি আমি তাদের সাজেসট করব যাদের স্কিন কসমেটিক ইউজ করলে জ্বালাপোড়া করে। বাচ্চাদের জন্য তৈরি বলে এই প্রোডাক্টে স্কিনের সেনসিটিভিটি মাথায় রাখা হয়েছে, সো চোখ বা ত্বক জ্বালাপোড়া, স্কিন লাল হয়ে যাওয়া, র‍্যাশ হওয়া এসব সিরিয়াস প্রবলেম যাদের আছে তারা এই প্রোডাক্টটিকে একবার চান্স দিতে পারেন। আশা করি হতাশ হবেন না।

 

(৩) Biore Sarasara UV Aqua Rich Watery Essence Sunscreen SPF50+ PA++++

– বায়োরে অ্যাকুয়া রিচ ওয়াটারি এসেন্স সানস্ক্রিন

দামঃ ১১ ডলারের মতো । আমি ৩ বার রিপারচেস করেছি প্রতিবারই ১৩০০-১৫০০/- টাকার মতো পড়েছে।

আজ পর্যন্ত আমার ইউজ করা সবচেয়ে পছন্দের সানস্ক্রিন! কিন্তু কাউকে সাজেস্ট করতে পারি না কারণ সানস্ক্রিনের জন্য সবার প্যাশন-তো কমই প্লাস প্রি-অর্ডার করবার ধৈর্যও তেমন কারো হয় না।

কিন্তু আপনি যদি খুব পপুলার সানস্ক্রিন গুলো ইউজ করেও ভালো রেজাল্ট না পান তবে এটা আপনার জন্য বাজেটে একটা ভালো রেজাল্ট দেবে বলে আমার ধারণা। কারণ আমার জানামতে পৃথিবীর সবচেয়ে ভালো সানস্ক্রিন ফর্মুলাগুলোর ভেতরে এটা একটা।

কেন? প্রথমত, এটার মতো লাইট সানস্ক্রিন আমি আজ পর্যন্ত ইউজ করি নি। এই প্রোডাক্টেও খুব কার্যকরী একটা কেমিক্যাল আর ফিজিক্যাল সানপ্রটেকশনের মিক্সার ইউজ করা হয়েছে, তাই সান সেফটি যে ষোলো আনা সেটা নিশ্চিত। আর টেক্সচার? অ্যালোভেরা জেলের চেয়ে একটু ক্রিমি! যেকোনো ডে বা নাইট “ক্রিম” এর অর্ধেক এর ঘনত্ব। মুখে লাগানোর ৫ মিনিট পড় আমি বুঝতেই পারি না যে স্কিনে কিছু একটা ইউজ করা হয়েছে!! অতিরঞ্জন মনে হচ্ছে? মোটেও বাড়িয়ে বলছি না… গত ৩ বছর ধরে যে এই সানস্ক্রিনের ৫টারও বেশি টিউব কিনেছি তার পেছনে এটাই রিজন!

প্রবলেম টা হচ্ছে, এটা একটা জাপানি প্রোডাক্ট ! (জাপানিজ সানস্ক্রিন ফরমুলেশন এখনও পৃথিবীতে সেরা) খুব বেশি অনলাইন পেজ এখনও রেগুলার এই প্রোডাক্ট ইম্পোর্ট করে না। কিন্তু অ্যামাজনে সবসময় অথেনটিক প্রোডাক্ট পাওয়া যায়। যারা ট্রাই করতে চান খুব ইজিলি অ্যামাজন থেকে প্রি-অর্ডার করতে পারেন।

(৪) MISSHA All Around Safe Block Aqua Sun Gel SPF50+/PA+++

– মিশা অল অ্যারাউনড সেফ ব্লক একুয়া সান জেল

দামঃ ১১.৫ ডলারের মতো। বাংলাদেশি পেজগুলোতে ১৫০০/- টাকার ভেতরে পাবেন।

আরেকটা খুবই ভালো বাজেট এশিয়ান সানস্ক্রিন! এটা কোরিয়ান। ‘মিশা’-র তৈরি বায়োর সান এসেন্স এর ‘dupe’ বলা যেতে পারে।

এটা কিন্তু বায়োর থেকে বাংলাদেশে ইজিলি এভেইলেবল। মোটামুটি সব অথেনটিক কোরিয়ান প্রোডাক্ট সেলারই এই প্রোডাক্ট স্টোর করেন। তাই খুঁজে পেতে খুব বেশি প্রবলেম হবার কথা নয়। আর প্রি-অর্ডারের অপশন তো খোলাই আছে।

মেকআপের নিচে এই প্রোডাক্ট খুব ভালো বসে। আর যারা মেকআপ করেন না বাট রোজ বাইরে যাবার আগে একটু পাউডার ইউজ করেন তাদের জন্য মিশার আরেকটি সাবস্টিটিউট হচ্ছে MISSHA Safe Block Soft Finish Sun Milk SPF 50+/PA+++

সান মিল্কটা ‘একুয়া সান জেল’-এর মতো স্কিনে ট্রেসলেস ভাবে মিশে যায় না। একটু লাইট কাভারেজ দেয়। আমার পারসনালি সেটা বেশ ভালো লাগে। বিবি ক্রিমের মতো একটা ইফেক্ট পাওয়া যায়। দুটো প্রোডাক্টই আমার অতিরিক্ত অয়েলি স্কিন ৩-৪ ঘণ্টা পর্যন্ত ম্যাট রাখে। দামও দুটোর সমান এবং বাজেটের ভেতরে।

 

খুবি ভালো কিছু প্রোডাক্ট সাজেসট করার চেষ্টা করলাম। দামটাও যাতে একটা নির্দিষ্ট রেঞ্জে থাকে সেটা ভেবেই কিন্তু প্রোডাক্ট কটা শর্টলিস্ট করেছি। আমি কন্টিনিউয়াস নতুন প্রোডাক্ট ট্রাই করি ‘আরও ভালো কিছু’ পাওয়া যায় কিনা জানার জন্য। তাই ‘আরও ভালো কিছু’ পেলে অবশ্যই ভবিষ্যতে আবার লিখব। এই গ্রীষ্ম থেকেই নিজের ত্বককে সুরক্ষিত রাখার রেজলিউশন যাদের আছে ,আশা করি তারা এই অসাধারণ প্রোডাক্ট-গুলো থেকে নিজের জন্য ভালো কিছু খুঁজে পাবেন।

আর আপনাদের সবার ‘সবচেয়ে পছন্দের’ ও ‘সবচেয়ে প্রিয়’ প্রোডাক্ট কোনগুলো সেগুলোও আমাদের কমেন্টে জানাতে পারেন। আমরাও নতুন কিছু ট্রাই করে দেখতে পারব আর আপনার মতই অন্য কেউ যদি এখনও নিজের ‘পারফেক্ট’ প্রোডাক্ট খুঁজে না পায় তবে তারও হেল্প হবে।

 

 

লিখেছেন- তাবাসসুম মীম

Comments

comments

Recommended