ত্বক, ত্বকের যত্ন, প্রসাধনী সম্পর্কে, সম্পাদকের পছন্দ

ফেসিয়াল সিরামঃ সঠিক প্রোডাক্ট কিভাবে বাছাই করবেন?

সিরাম নিয়ে এর আগের লেখায় এ সম্পর্কে ফ্রিকোয়েন্টলি জিজ্ঞেস করা কিছু প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার ট্রাই করেছিলাম। কিন্তু সবার মেইন প্রশ্ন যেটা সেটা হচ্ছে-

“আমার জন্য কোনটা ভালো?”

ভালো প্রশ্ন, কিন্তু ব্যাপারটা হল, আপনার স্কিন, তার প্রবলেম কি সেটা আপনিই জানবেন। ফেসবুকে কেউ ম্যাজিকালি আপনাকে পারফেক্ট অথবা আপনাদের প্রিয় শব্দ- ‘ভালো’ প্রোডাক্ট খুঁজে দিতে পারবে না। হ্যাঁ, একেবারেই স্কিন কেয়ার এবং উপকারি উপাদান সম্পর্কে আইডিয়া নেই এমন অনেকেই আছেন এবং তাদের জেনে রাখা উচিত, ‘ভালো’ প্রোডাক্ট খুঁজে পেতে হলে এসব ল্যাকিংস তাদের নিজেদেরই পূরণ করতে হবে। অজ্ঞ থেকেই যাবেন আর অন্যের মাথায় কাঁঠাল ভেঙ্গে খেয়ে নেবেন ,এমনটা ভেবে থাকলে আবার ভাবুন, হয়তো আপনার আলসেমির সুযোগ নিয়ে ইতিমধ্যে কয়েকশ অসৎ সেলার হাজার হাজার টাকা আপনার পকেট থেকে খসিয়ে নিয়েছে। আফটার অল, নিজের জন্যেই একটু জানতেও আলসেমি যাদের , এমন বোকার স্বর্গ হাতের কাছে পেয়ে কেউ ছেড়ে দেয়?

আজকে তাই কয়েকটা বেসিক স্কিন টাইপ অ্যান্ড প্রবলেমের জন্য কোন কোন উপাদান দেখে নিজের ফেসিয়াল সিরাম বাছাই করবেন তাই আলোচনা করছি। উপাদানের সম্পর্কে বেসিক কিছু নলেজ নিয়ে রাখা শুরু করে দিন আজ থেকেই।

স্কিন টাইপঃ ড্রাই, ডিহাইড্রেটেড / অয়েলি ডিহাইড্রেটেড

প্রবলেম- সারা বছর ধরে থাকা খসখসে স্কিন, চামড়া ওঠা, মেকআপ না বসা, অয়েলি হয়ে থাকার পড়েও খসখসে আর চামড়া ওঠার প্রবলেম থেকেই যাওয়া।

ফেসিয়াল ওয়েল এবং ওয়েল বেইজড সিরাম খুঁজুন। হেভি সিলিকন ফিলড প্রোডাক্টের চেয়ে একটা ভালো ফেসিয়াল ওয়েল আরও ভালো কাজ করবে। শীতে আরগান ওয়েল বা এ ধরনের হেভি ওয়েল এবং সামারে রোজহিপ ওয়েল, তামানু ওয়েল- এ ধরনের ড্রাই ওয়েল ইউজ করতে পারেন।

সাজেশনস-

১. বডিশপ ভিটামিন ই ময়েশ্চার সিরাম (The Body Shop Vitamin E Moisture Serum) (৳১৫৫০)

২. বডিশপ অয়েলস অফ লাইফ ফেসিয়াল অয়েল (The Body Shop Oils Of Life Facial Oil) (৳৩৯৫০)

৩. স্কিনক্যাফে আরগান অয়েল (Skin Cafe Argan Oil) (৳১৫৫০)

৪. জোজি মারান আরগান অয়েল (Josie Maran Argan Oil) ($৪৮)

৫. দি অরডিনারি রোজহিপ অয়েল, আরগান অয়েল, মারুলা অয়েল (The Ordinary Rosehip Oil, Argan Oil, Marula Oil) ($১০ – $১৭ )

স্কিন টাইপঃ অয়েলি ডিহাইড্রেটেড

প্রবলেম- অয়েলি হয়ে থাকার পড়েও খসখসে আর চামড়া ওঠার প্রবলেম থেকেই যাওয়া , সাথে হেভি প্রোডাক্ট ইউজ করার ফলে ব্রন ওঠা।

রাইট প্রোডাক্ট খুঁজে পাওয়া এধরনের স্কিনের জন্য কঠিন। উপাদান লিস্ট যেন হায়ালুরোনিক এসিড (Hyaluronic acid) বেসড হয় সেদিকে খেয়াল রাখুন। প্রপোলিস আর ইস্ট বেসড ফারমেনটেশন ও এধরনের স্কিনে ভালো কাজ করে।

সাজেশনস-

১. দি অরডিনারি হায়ালুরোনিক এসিড+ ভিটামিন বি ফাইভ (The Ordinary Hyaluronic Acid+Vitamin B5) (৳১১)

২. দি অরডিনারি ম্যারিন হায়ালুরোনিকস (The Ordinary Marine Hyaluronics) ($১১)

৩. লিজিহাম প্রপোলিস অ্যাম্পুল (Leegeehaam Propolis Ampoule) (৳১৯০০-৳২০০০)

স্কিন টাইপঃ একনে প্রোন

প্রবলেম- যখন তখন ব্রেকআউট, ক্লগড পোরস।

টি ট্রি ওয়েল , উইচ হেজেল এবং বিএইচএ (স্যালিসিলিক এসিড, বিটেইন স্যালিসিলেট) যুক্ত সিরাম খুঁজুন। টি ট্রি স্কিনের ব্যাকটেরিয়া দূর করে, বিএইচএ পোরের ভেতরের জমে থাকা তেল গলিয়ে ফেলে।

সাজেশনস-

১. দি বডিশপ টি ট্রি অ্যান্টি ইমপারফেকশন ডেইলি সলিউশন (The Body Shop Tea Tree Anti-Imperfection Daily Solution) (৳১৪৫০)

২. দি অরডিনারি ২% স্যালিসিলিক এসিড সলিউশন (The Ordinary 2% Salicylic Acid) ($৯)

৩. পলা’স চয়েস ২% বিএইচএ লিকুইড (Paula’s Choice 2% BHA Liquid) ($২৯)

স্কিন টাইপঃ সব ধরনের ত্বক

প্রবলেম- দাগ ছোপ (ব্রণ বা ক্লগড পোর থেকে), হাইপারপিগমেনটেশন, ফ্রেকলস ইত্যাদি।

এধরনের সমস্যা ‘দূর’ করা যায় না, কনট্রোল করা যায়। এজন্য রুটিনে রাখার ট্রাই করুন নায়াসিনামাইড, আরবুটিন, ভিটামিন সি। এসব উপাদানই স্কিনের দাগ ছোপ কনট্রোলে রাখায় প্রমানিত। প্রপার সান প্রোটেকশনের সাথে এর যুগলবন্দী সিওরলি স্কিনের উন্নতিতে সাহায্য করবে।

সাজেশনস-

১. দি অরডিনারি আলফা আরবুটিন ( The Ordinary Alpha Arbutin) ($১৩)

২. পলা’স চয়েস সি ফিফটিন বুস্টার (Paula’s Choice C15 Booster ) ($৪২)

৩. উইশট্রেনড সি টোইয়েন্টি ওয়ান সিরাম (Wishtrend C21 Serum) (৳২০০০)

৪. টাইমলেস ভিটামিন সি ফেরুলিক এসিড সিরাম (Timeless Skin Care Vitamin C Ferulic Acid serum) ($২৫)

স্কিন টাইপঃ সব ধরনের ত্বক

প্রবলেম- বয়সের ছাপ, ফাইন লাইনস, রিংকেল।

ফাইন লাইনস দেখা দেয়ার জন্য ওয়েট করবেন না। সবসময়ই সান প্রোটেকশন ইউজ করতে হবে। ২৬-২৮ বছর বয়সে রেগুলার স্কিনকেয়ারে রেটিনল , গ্লাইকলিক এসিড, ল্যাকটিক এসিড ইত্যাদি ইউজ করা শুরু করতে পারেন। রেটিনাল অ্যান্টি এজিং স্কিন কেয়ারের গোল্ড স্ট্যান্ডার্ড। আর এএইচএ এসিডগুলো স্কিনের ডেড সেল দূর করে আর কোলাজেন প্রোডাকশন বাড়িয়ে ত্বকের ফার্মনেস ঠিক রাখে আর রিংকেলের হার কমায়।

সাজেশনস-

১. আরওসি ডীপ রিংকেল সিরাম (ROC deep wrinkle serum) ($২৫)

২. অ্যাস্টে লডার অ্যাডভান্সড নাইট রিপেয়ার রিকভারি কমপ্লেক্স (Estee Lauder advanced night repair recovery complex) ($৬৮)

৩. মিশা নাইট রিপেয়ার সাইন্স অ্যাক্টিভেটর অ্যাম্পুল (Missha night repair science activator ampule) (৳৩৩০০)

৪. সানডে রাইলি গুড জিনস (Sunday Riley Good Genes) ($৮৫)

৫. বডিশপ ড্রপস অফ ইউথ কন্সেনট্রেট (The Body Shop Drops Of Youth Concentrate) (৳৩৯৫০)

বেসিক স্কিন প্রবলেমগুলোর জন্য কোন উপাদানগুলো কাজ করবে আর সেই উপাদানগুলোকে মুখ্য রেখে তৈরি কিছু বিশ্বখ্যাত প্রোডাক্ট নিয়ে আজ কথা বললাম। যদি উপাদান নিয়ে জানতে ইন্টারেস্টেড হন তো নিজে নিজে এসব প্রোডাক্ট নিয়ে একটু নেট ঘেঁটে রিভিউ পড়ে দেখতে পারেন। সেফোরা, আলটা রিভিউগুলো পড়লেই উপাদানের কার্যকারিতা নিয়ে আইডিয়া পাবেন।

আর ভবিষ্যতে ভিটামিন সি, রেটিনল, এএইচএ, বিএইচএ এসব উপাদান নিয়ে আরও বিস্তারিত আলোচনা করব। অনেকেরই মনে উপাদানগুলো নিয়ে অনেক প্রশ্ন আছে , তাই না? সেগুলো আশা করি তখন ক্লিয়ার হবে, তাই একটু অপেক্ষা করুন।

উপরের লেখায় মেনশন করা প্রোডাক্টগুলো কিনতে চাইলে সেফোরা, আলটা, অ্যামাজন থেকে বিভিন্ন পেজের মাধ্যমে প্রি-অর্ডার করতে পাড়েন। শপ.সাজগোজ.কম-এর মধ্যে কিছু প্রোডাক্ট স্টকে রাখে। সেখানেও যোগাযোগ করতে পারেন।

লিখেছেন- তাবাসসুম মীম

Comments

comments

Recommended