সম্পাদকের পছন্দ, সৌন্দর্য পরামর্শ

বেবী পাউডারের এই অসাধারণ ব্যবহারগুলো জানেন কি?

হ্যালো সাজগোজের বন্ধুরা। কেমন আছেন সবাই? নিশ্চই ভালো। কিছুদিন আগে বেবী অয়েলের কিছু অজানা ব্যবহার সম্পর্কে আপনাদের জানিয়েছিলাম। তো আজ ভাবলাম, বেবী অয়েলের মত বেবী পাউডারেরও তো কিছু অসাধারণ ব্যবহার রয়েছে। সেগুলো কেন শেয়ার করি না?!

বেবী পাউডার বেবীর স্কিনে ব্যবহারের জন্যে তৈরী হয়। কিন্তু এটির অন্যান্য অজানা ব্যবহার সম্পর্কে আমরা অনেকেই জানি না।

তো চলুন আর কথা না বাড়িয়ে বেবী পাউডারের অজানা ব্যবহারগুলো জেনে নেই।

১. ব্যস্ততার কারণে ৩-৪ দিন চুল শ্যাম্পু করা হয় নি, অথবা অনেকেই চুলের ক্ষতির কথা ভেবে ২-১ দিন বাদেই শ্যাম্পু করতে চান না। কিন্তু আপনার স্কাল্পটা অয়েলি। শ্যাম্পু ঠিকমতো না করলে মনে হয় মাথায় তেল দিয়ে রেখেছেন। এই অবস্থায় বাইরে যাবেন কি করে? আর এখন শ্যাম্পু করে, তারপর বাইরে যাওয়ার সময়ও নেই!! তাহলে??

এহ্মেত্রে বন্ধু হতে পারে বেবী পাউডার। হাতে বেশ খানিকটা বেবী পাউডার নিয়ে একটি বিগ ফ্লাফি মেকাপ ব্রাশের সাহায্যে চুলের গোড়ায় সিঁথি কেটে কেটে বেবী পাউডার লাগিয়ে নিন। এবার চুল আচড়ে নিন। ব্যস, চটজলদি আপনার স্কাল্পের এক্সট্রা অয়েল গায়েব। এটা অনেকটা ড্রাই শ্যাম্পুর মতই কাজ করে।

২. অনেক সময় পা ঘেমে গিয়ে পছন্দের জুতাজোড়াতে বাজে গন্ধ হয়ে যায়। এই বিরক্তিকর সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে পারে বেবী পাউডার।

একটু খানি পাউডার নিয়ে জুতোর ভেতরের দিকে ছড়িয়ে দিন। ব্যস।

৩. যাদের স্কিন বেশ অয়েলি তাদের স্কিনে মুখ পরিষ্কারের বেশ কিছুক্ষণ পরেই অয়েলি শাইন দেখা যায়। তখন, একটু বেবী পাউডার নিয়ে পুরো ফেস এ লাগাতে পারেন। এটি ফেস এর শাইন কন্ট্রোল করতে হেল্প করে এবং স্কিনে একটা ফ্রেশ লুক এনে দেয়।

যেহেতু এটা বেবীদের সফট স্কিনের কথা ভেবেই তৈরী, সেহেতু এটা আপনার স্কিনে প্রবলেম তৈরী করবে না।

৪. আমার আইল্যাশ এত ছোট এবং পাতলা যে মাশকারা দেওয়ার পরেও কেমন যেন শান্তি লাগেনা। আর সবসময় তো আর ফলস ল্যাশ পড়ে ঘোরা সম্ভব না। তো আমি কি করি?

প্রথমে হালকা করে এক কোট মাশকারা লাগিয়ে নেই। এরপর, একটা ছোট আইশ্যাডো ব্রাশে বেবী পাউডার নিয়ে আইল্যাশে লাগিয়ে নেই এবং এক্সট্রা পাউডার টুকু ঝেড়ে ফেলে দেই। তারপরে আবার ভালো করে কয়েক কোট মাশকারা লাগিয়ে নেই। এতে করে আমার আইল্যাশে অনেক বড় ডিফারেন্স আসে।

৫. সাধের নেকলেস এর চেইনগুলো একটার সাথে আরেকটা পেঁচিয়ে গেছে। এটা আমাদের মেয়েদের সবারই কাছেই কমন ঘটনা। তো সেই চেইন ছাড়াতে গিয়ে তো বেশ বেগ পেতে হয়। সহজে তো ছাড়তেই চায় না। তবে, এই কাজটি এবার থেকে সহজ করে দেবে বেবী পাউডার।

অল্প একটু পাউডার নিয়ে যেখানে চেইন পেঁচিয়ে গিয়েছে সেখানে লাগিয়ে নিন। দেখবেন চেইনের প্যাচগুলো খুলে আসছে। এরপর ছাড়িয়ে নিলেই হল।

৬. মেকাপ বেকিং এর কথা তো এখন সবাই ই কমবেশী জানেন। তো বেকিং করার জন্যে লুজ পাউডার নেই? অথবা ফুরিয়ে গেছে?

কোনো চিন্তা নেই। বেবী পাউডার দিয়েই করতে পারবেন মেকাপ বেকিং।

একটি মেকাপ স্পঞ্জে বেশ খানিকটা বেবী পাউডার নিয়ে আপনার আন্ডারআই, মাউথ এড়িয়া, কপাল, নাক এবং কনট্যুরিং লাইনের নিচে লাগিয়ে নিন। এবার ৫ মিনিট এভাবেই রেখে দিন। এরপর, একটা বড় পাউডার ব্রাশের সাহায্যে এক্সট্রা পাউডারগুলো ঝেড়ে ফেলে দিন। ব্যস!!

৭. বেবী পাউডার স্কিন সুদিং এ হেল্প করে। আপনার হাটু, কনুই ইত্যাদি এড়িয়াতে ইরিটেশন অথবা ড্রাই প্যাচ থাকলে সেখানে অল্প একটু বেবী পাউডার লাগিয়ে নিয়ে রাব করুন হালকাভাবে। এটা স্কিনকে সুদিং ফিলিং দিবে।

৮. পিম্পল এবং একনি স্পট হাইডে বেবী পাউডার এখন বেশ জনপ্রিয়। কারণ, বেবী পাউডার ময়শ্চার শুষে নেয়, যার ফলে পিম্পল শুকিয়ে আসে। এজন্যে,

একটি ছোট বাটিতে ২ চা চামচ বেবী পাউডার নিয়ে এর মধ্যে পরিমান মত পানি  মিশিয়ে একটা থিক পেস্ট তৈরি করুন। এবার এটি শুধুমাত্র যেখনে পিম্পল অথবা স্পট রয়েছে, সেই সকল জায়গাতে লাগাবেন। পুরো মুখে লাগানোর দরকার নেই। ৩০ মিনিট পরে ধুয়ে ফেলুন।

৯. মেকাপের আগে প্রাইমার হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন বেবী পাউডার। কারণ বেবী পাউডার স্কিনে একটি সফট এবং স্মুদ ভাব তৈরি করে, যার ফলে ফাউন্ডেশন সুন্দরভাবে স্কিনে বসে যায় এবং ব্লেন্ড হয়।

১০. অনেকেই আমরা বাসায় বসে ওয়্যাক্সিং করে থাকি। এটাকে একটু সহজ করে তুলতে পারে বেবী পাউডার।

যে এড়িয়াতে ওয়্যাক্সিং করবেন, সেখানে সামান্য বেবী পাউডার লাগিয়ে নিন। এরপর ওয়্যাক্স করে ফেলুন।হেয়ারের আশেপাশের ময়শ্চারটুকু বেবী পাউডার শুষে নেবে এবং ওয়্যাক্সিং সুন্দরভাবে করা হয়ে যাবে।

এই তো জেনে নিলেন, বেবী পাউডারের কিছু অসাধারণ ব্যবহার সম্পর্কে। আশা করছি, আপনাদের অনেক বেশী হেল্প হবে।

লিখেছেন- জান্নাতুল মৌ

ছবি- লারইয়াম.কম

Comments

comments

Recommended