গরম দিনের আরাম আয়োজন


প্রাণ ছটফট করা গরম এই আসছে বলে! খুব তো শীতের সান্নিধ্যে এতদিন ভরপুর সাজুগুজু হলো, ভারী পোশাকে ফ্যাশন রক্ষা চললো, দাওয়াত পর্বে ভরপেট ভোজন হলো। এইবার কী হবে? এইবার আর যাই হোক, সবার আগে মাথায় রাখা লাগবে আরামের দিকটা। গরমটা খুব সহজেই কাহিল করে দিতে পারে মানুষকে, সে হিসাব রেখেই কিন্তু চলতে হবে।

পোশাকে থাকুক আরাম

আরামদায়ক পোশাকেও তো ফ্যাশন হয়। তাই আপনার সামার কালেকশন হিসেবে খুব চাপা পোশাকের বদলে অল্প ঢোলাঢালা পোশাক রাখুন সব। সালোয়ারের সাথে কামিজ নাহয় ঢোলাঢালা হলে ভালো দেখায় না অত, কিন্তু কুর্তি ঢোলা হলে মোটেও খারাপ লাগে না! প্যান্ট বা পালাজ্জো, কিংবা চুড়িদার যেটার সাথেই পরুন না কেন কুর্তিখানা খানিক ঢোলাই হোক। মানাবে তো বটেই, আরাম পাবেন পুরোপুরি। সিল্ক, জর্জেট এসমস্ত তন্তুকে শীতের সাথেই বিদায় বলুন। দাওয়াত বা বড় অনুষ্টান ছাড়া এসব উপাদানের পোশাক বেছে নিয়ে নিজেকে গরমে অতিষ্ঠ করে কী লাভ! চাইলে অনুষ্টানেও সুতির মাঝে জমকালো কাজকরা পোশাক পরা যায়। গরমের দিনে এসব পোশাক দেখেও চোখের শান্তি। নরম, উজ্জ্বল রঙগুলো রাখুন পোশাকে। উগ্র রঙে চোখ ঝলসানোর মৌসুম গরম নয়।

রোদচশমা সঙ্গী

রোদচশমা পরার অভ্যাস অনেকেরই নেই। ডার্ক গ্লাস চোখে চড়ালে কেমন যেন অদ্ভুত লাগে! কিন্তু এই যে কড়া রোদ, প্রচন্ড ধুলাবালি, তার থেকে চোখ বাঁচানো তো জরুরি। তাই বেছে নিতে পারেন সাদা কাঁচের চশমাগুলো। বেশ কানাইমাস্টার ভাবও আসতে পারে চেহারায়, উপরি হিসেবে! তাতেও বিরক্ত লাগলে এটা মনে রাখুন, রোদ বাবাজি আপনার চোখের চারপাশের নরম চামড়াকে পুড়িয়ে ভারী মজা পায়। অযথা তাকে এই মজাটা কেন নিতে দেয়া?

ব্যাগখানাও হোক হালকা উপাদানের

কাপড়ের তৈরি ব্যাগ এই গরমে বেশ কাজের জিনিস। কিংবা জিন্স দিয়ে বানানো ব্যাগ। ভারী উপাদানে তৈরি ব্যাগগুলো গরমে গায়ের সাথে লেগে থাকলে সেটা মাঝেমাঝে বিরক্তির কারণ হয়, তা ভ্যানিটি ব্যাগই হোক কিংবা ব্যাকপ্যাক। তাই ব্যাকপ্যাক নিলেও হালকা কিছুই বেছে নিন। দিনভর স্বস্তিতে থাকবেন।

সাজুগুজু কমই ভালো

নিত্যদিন বের হচ্ছেন, অন্তত বিবি ক্রিম না হলে চলছেই না, এই অভ্যাস থেকে বেরিয়ে আসাটা অবশ্যই ভালো। কেন? দেখতে ভালো বা খারাপের কারণে নয়, আপনার ত্বকের কারণেই এমনটা বলা। অধিকমাত্রার বিউটি প্রডাক্ট ধীরেধীরে আপনার ত্বককে ভেতর থেকে ক্ষতিগ্রস্ত করে থাকে। তাই স্কিনকেয়ার হোক প্রতিদিন।  মেক-আপ না হয় বিশেষ দিনগুলোর জন্যেই তোলা থাক? তাছাড়া রোদে গরমে ঘুরে বেড়াচ্ছেন আর মেক-আপ ছড়িয়ে মুখের অবস্থা ঠিক থাকছে না, টাচ-আপের দরকার পড়ছে, এত ঝামেলা করে কী কাজ! সানব্লক আর লুজ পাউডার, পছন্দের লিপস্টিক, চাইলে কাজল বা আই-লাইনার, এতেই তো দারুণ সাজ সম্ভব প্রতিদিন। লিপবাম ব্যবহার করলে এসপিএফ সমৃদ্ধ লিপবাম কিনুন। ঠোঁটেরও সুরক্ষা প্রয়োজন রোদ থেকে।

ব্যাগের ভেতর যা অবশ্যই চাই

পানির বোতল, ছাতা নিতে বিরক্ত লাগলে একটা বাড়তি স্কার্ফ, এই দুই বস্তু নিত্যদিনের জন্য সাথে রাখুন গরমে। সবসময় পাশে দোকান পাবেন না পানি কিনে নিতে, আর মাথার উপর সূর্য অসহ্য তাপ ছড়ালে নিজেকে ছায়া দেয়ার সামান্য কিছু তো সাথে থাকাই চাই। চলতি পথে মুখহাত ধোয়া হলে তারপর আবার যেন দেয়া যায় সে কথা ভেবে সানব্লকটাও রাখতে পারেন ব্যাগে। এই কয়টা সরল হিসাব মাথায় নিয়ে এবার তৈরি হয়ে যান গরমের দিনেও সতেজ থাকতে!

ছবি – কৌশিক ইকবাল

 

লিখেছেন – মুমতাহীনা মাহবুব