মেকাপ, সৌন্দর্য পরামর্শ

শীতের পরবর্তী সময়ে অফিস মেকাপ কেমন হওয়া চাই?  

শীত তো চলেই যেতে শুরু করেছে। এই সময়টিতে ক্ষণে ঠাণ্ডা তো ক্ষণে গরম লাগার মতো অবস্থা! এই সময়টাতে ত্বক কিন্তু শীতের মতোই রুক্ষ থাকে। তার উপর অফিস  একটু সাজগুজ না করলেও যেন ভাল লাগে না। মনে হয় দিনটাই কেমন যেন বোরিং। এছাড়াও অফিসে হঠাৎ করে বিভিন্ন কনফারেঞ্চ অথবা লাস্ট মিনিটের মিটিংগুলো অ্যাটেন্ড করতে হয়। তাই উপযুক্ত এবং পেশাদারী সাজগুজ করাটা অবিশ্বাস্যভাবে গুরুত্বপূর্ণ।অফিসে সারাদিন ফ্রেশ দেখতে হলেও হালকা সাজগুজ করাটা জরুরি।

আমরা অনেকই কনফিউসড থাকি যে শীতের পর পর এই সময়টাতে অফিসে কী ধরনের মেকআপ করে যাওয়া যায়। তাই আজকে আমরা জানবো শীতের পরবর্তী বসন্তকালে অফিস মেকআপের ডুস এবং ডোন্টস সম্পর্কে।

ময়েশ্চারাইজ

মেকআপের পূর্বে ত্বক ময়েশ্চারাইজ করা অতি আবশ্যক শুধুমাত্র শীতেই নয় বরং সবসময়। এই সময়টিতে খুব সাধারণ একটি সমস্যা হল ত্বকের শুষ্কতা। তাই মেকআপ করার আগে আমাদের ভালো কোন ময়েশ্চারাইজার অথবা ফেশিয়াল অয়েল ব্যবহার করতে হবে। যারা খুব লাইট ময়েশ্চারাইজার চান এবং তৈলাক্ত ত্বকের অধিকারিরাও আমন্ড অয়েল ব্যবহার করতে পারেন। ময়েশ্চারাইজার ব্যবহারের পর সবশেষে সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে হবে।

ফাউন্ডেশন ও প্রাইমার

মেকআপ দীর্ঘস্থায়ী করার অন্যতম উপাদান হল প্রাইমার। প্রাইমার শুধুমাত্র মেকআপকে দীর্ঘস্থায়ী করে না এটি ফ্ললেস মেকাপ করতেও সাহায্য করে। এরপর চোখের নীচে ব্যবহার করবেন কনসিলার এবং চেষ্টা করবেন স্কিন কালার থেকে একটু লাইট শেডের কনসিলার ব্যবহার করার।এই সময়টিতে সেমি ম্যাট প্রসাধনী স্কিনে ব্যবহার করাটাই উত্তম। তবে যাদের টি-জোন খুব দ্রুত তৈলাক্ত হয়ে যায় তারা শুধুমাত্র টি-জোনে ম্যাট ফেস পাউডার ব্যবহার করতে পারেন। অবশ্যই ফেইসের সাথে সামঞ্জস্য রেখে গলায় মেকআপ করতে ভুলবেন না।

ব্লাশ, ব্রোঞ্জার এবং হাইলাইটার

শীতে ডিপ পিঙ্ক অথবা পীচ কালারের ব্লাশ ব্যবহার করবেন। চেষ্টা করবেন ক্রিমি ব্লাশ ব্যবহার করার। ব্রোঞ্জার ব্যবহারের ক্ষেত্রে খেয়াল রাখবেন ব্রোঞ্জারের শেডটা যেন বেশি ডার্ক না হয়। বর্তমানে হাইলাইটার সবার কাছে অনেক জনপ্রিয়তা লাভ করেছে কিন্তু অফিস মেকআপের সময় অতিরিক্ত হাইলাইটার ব্যবহার করবেন না। শুধুমাত্র নাকের উপরে হালকা করে হাইলাইটার দিবেন এরপর ফেইস মিষ্ট দিয়ে ফেইস মেকাপ শেষ করবেন।

আই মেকআপ

অফিস ডিপ কালারের আইশ্যাডো ব্যবহার না করাই ভালো।সেক্ষেত্রে আপনি ব্যবহার করতে পারেন লাইট ব্রাউন অথবা পীচ ও অ্যাশ কালারের ম্যাট বা ক্রিমি আইশ্যাডো। আইব্রো ড্র করবেন অবশ্যই, ব্ল্যাক কালারের আইলাইনার দিয়ে উইংড লাইনার দিবেন এবং চেষ্টা করবেন বেশি মোটা করে কাজল না দেয়ার কারণ মোটা করে কাজল দিলে কাজল ছড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি থাকে আর অফিসের কর্ম ব্যস্ততার মাঝে আপনি নিশ্চয়ই বার বার আয়নাতে দেখে কাজল ঠিক করার সময় পাবেন না। চোখে সবসময় ওয়াটার প্রুফ কাজল, আইলাইনার ও মাশকারা ব্যবহার করবেন। মাশকারা ১ থেকে ২ কোটের বেশি অ্যাপলাই করবেন না।

লিপস্টিক

অবশ্যই লিপস্টিকদেয়ার আগে লিপবাম ব্যবহার করবেন। চেষ্টা করবেন সেমি ম্যাট লিপস্টিক ব্যবহার করার।  এমনিতেই ঠোঁট শুষ্ক থাকে। হালকা ম্যাট বা ক্রিমি লিপস্টিক ব্যবহার করবেন এবং লিপস্টিকের রঙের ক্ষেত্রে স্কিন কালারের সাথে মানানসই কোন রঙ ব্যবহার করবেন। এছাড়াও হালকা ব্রাউন, মেরুন ও ডিপ পারপেল লিপস্টিক ব্যবহার করতে পারেন।

গরম চা ও কফির পাশাপাশি সঠিক পরিমাপে পানি পান করুন এবং রাতে ঘুমানোর পূর্বে অবশ্যই ফেইস ক্লিন করে ঘুমাবেন। শীতে সুন্দর ভাবে নিজেকে পরিবেশন করুন এবং পারফ্যাক্ট স্কিন কেয়ারের সাথে শীতের পরের মৌসুম উপভোগ করুন।

ছবি – স্টাইলক্রেজ ডট কম

লিখেছেন – তাহিয়া জাহান

Comments

comments

Recommended