ব্রাইডাল, সৌন্দর্য পরামর্শ

বাজেটের মধ্যেই বিয়ের কেনাকাটা (পর্ব ৩)

অলংকার ছাড়া বিয়ের কথা ভাবাই যায় না। দিনে দিনে বিয়ের গহনাতে এসেছে নানা পরিবর্তন ও বৈচিত্র। এখন শাড়ি বা বিয়ের পোশাকের সাথে মিলিয়ে গহনা কেনা বা তৈরি করা হয়ে থাকে। তবে বিয়ে মানেই যে ভারি ভারি গহনা এমন ধারণা বদলাতে শুরু করেছে। ছোট ডিজাইনের সিম্পল গহনাতে আপনি হয়ে উঠতে পারেন সবার চেয়ে ভিন্ন যদি তাতে থাকে রুচির ছোঁয়া। বিয়ের পোশাকের সাথে গহনা মিলিয়ে কেনার ক্ষেত্রে একটি বিষয় খেয়াল রাখবেন। যদি বিয়ের পোশাক ভারি কাজের হয় তবে হালকা কাজের গহনা বাছাই করবেন আর বিয়ের পোশাক যদি হালকা কাজের হয় সেক্ষেত্রে ভারি কাজের গহনা নির্বাচন করবেন। এতে বিয়ের সাজে ভারসাম্য ফুটে উঠবে।

বর্তমানে গোল্ডেন রঙের পাশাপাশি সিলভার, কপার, এন্টিক কালারের গহনার প্রাধান্য বাড়ছে। তবে বিয়ের অলংকারের ক্ষেত্রে পছন্দের তালিকায় সবার আগে আসে সোনার গহনা। সোনার সাথে থাকছে পুঁতি ও মুক্তার কাজ।গোল্ডেন ও সাদা সোনার পাশাপাশি গোলাপি সোনারও ব্যবহার দেখা যাচ্ছে।

হীরার গহনার জনপ্রিয়তাও বেশ। তবে এক্ষেত্রে ছোট গহনাগুলোই থাকে পছন্দের শীর্ষে যেমন হীরার নাকফুল, আংটি, কানের দুল।

সোনার এবং হীরার গহনা সকলের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে না থাকায় বর্তমানে বিয়েতে রূপা,মেটালিকের গহনার চাহিদা বাড়ছে। রূপার উপর সোনার প্রলেপ দেওয়া গহনার ও ব্যবহার বাড়ছে। বিশেষ করে আনুষাঙ্গিক গহনাগুলো যেমন নাকের নোলক, টায়রা, ঝাপটা, পায়ের নূপুর ইত্যাদি রূপার উপর সোনার প্রলেপ দিয়ে তৈরি করা হচ্ছে।

বিয়েতে বর্তমানে সবচেয়ে বেশী ব্যবহৃত হচ্ছে মেটালের গহনা। মেটালের গহনাতে আপনি আপনার পছন্দ মতো যে কোন ডিজাইন দিতে পারবেন। তবে খেয়াল রাখবেন সব গহনাগুলো যেন একই মেটাল ও একই রঙের হয়। ভিন্ন ধরণের ও ভিন্ন রঙের হলে দেখতে ভালো লাগবে না।

কোথায় পাওয়া যেতে পারে এবং দরদাম কেমন হতে পারে?

সোনার গহনার বিশাল বাজার রয়েছে বায়তুল মোকাররম মার্কেট, ঢাকা নিউ মার্কেট, বসুন্ধরা সিটি, যমুনা ফিউচার পার্কে। এছাড়া গুলশান, বনানী, উত্তরার বিভিন্ন শপিং মলেও পেয়ে যাবেন আপনার পছন্দের বিয়ের গহনা। ২১ ক্যারেট মানের সোনার ভরির দাম ৪৭ হাজার ১২২ টাকা। ১৮ ক্যারেটের ক্ষেত্রে ৪১ হাজার ৮৭৪ টাকা। তবে সময়ের সাথে সাথে দামের হেরফের হতে পারে।

হীরার গহনার দাম নির্ভর করে এর আকার ও উজ্জ্বলতার উপর। ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ডে পেয়ে যাবেন আপনার পছন্দের হীরার গহনা। এছাড়া বসুন্ধরা সিটি, যমুনা ফিউচার পার্কেও রয়েছে ডায়মন্ডের কালেকশন।

বর্তমানে হীরা এবং সোনার গহনার দাম বৃদ্ধির সাথে সাথে রূপার গহনার ও দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। মোটামুটি সব গহনার দোকানেই রূপার গহনা পাওয়া যাবে। রূপার উপর সোনার প্রলেপ দেওয়া গহনাগুলোর বিশাল সমাহার রয়েছে চাদনী চক,বসুন্ধরা সিটি ও গুলশানে পিংক সিটিতে। এছাড়া আড়ংয়ে রয়েছে বিভিন্ন ধরণের রূপার ডিজাইন করা গহনা যার সাথে রয়েছে মুক্তা,পাথরের কাজ।

বড় বড় শপিং মলে এবং মার্কেটে পেয়ে যাবেন মেটালের গহনা। চাদনী চক, বসুন্ধরা সিটি এবং আড়ংয়ে পেয়ে যাবেন মেটালের গহনা। মেটালের গহনা ভরি বা গ্রাম হিসেবে বিক্রি হয় না। ডিজাইন এবং আকৃতি অনুসারে বিক্রি করা হয়।১০ হাজার থেকে ২৫ হাজার টাকার মধ্যে আপনি মেটালের এক সেট গহনা পেয়ে যাবেন।

ছবি – অলঅ্যাবাউটওমেন ডট কম

লিখেছেন – আফসানা প্রীতি

বাজেটের মধ্যেই বিয়ের কেনাকাটা (পর্ব ১)

বাজেটের মধ্যেই বিয়ের কেনাকাটা (পর্ব ২)

Comments

comments

Recommended