চুলের যত্ন, সৌন্দর্য পরামর্শ

ঘন এবং লম্বা চুলের জন্যে বায়োটিন শেইক

চুলের যত্নের জন্যে আমরা কতো কিছুই মেখে চলেছি। লাভ কিন্তু খুব বেশি হচ্ছে না। কারণ সৌন্দর্য আসে ভেতর থেকে। আমাদের শরীরের কথাই ধরুন, ভেতর থেকেই যদি পুষ্টি না পায় তাহলে শরীর একটা সময় পর দূর্বল হয়ে পড়বে। তেমনি চুলের পুষ্টির জন্যেও ভেতর থেকে পরিচর্যা অত্যন্ত জরুরী।

চুলের পুষ্টি এবং বৃদ্ধির জন্যে ভিটামিন বি ৭ অথবা বায়োটিন অনেক পরিচিত। বাজারে অনেক রকম বায়োটিন পিল পাওয়া যায়। যা গ্রহণে চুল বাড়ে ঠিকই কিন্তু বিভিন্ন সাইড এফেক্টও কিন্তু রেখে যায়।

(১) পিম্পল

(২) ওজন বৃদ্ধি

(৩) মেজাজ পরিবর্তন।

(৪) হজমে সমস্যা।

তো একটা ভালো করতে গিয়ে অনেকগুলো খারাপ বয়ে আনার তো কোনো মানে হয় না।  কিছু ফুড আছে যাতে প্রচুর মাত্রায় বায়োটিন বা ভিটামিন বি ৭ রয়েছে।  সেই সকল ফুড গ্রহণে চুলের সঠিক বৃদ্ধি সম্ভব। বিভিন্ন ধরনের শেইক তো আমরা খেয়েই থাকি। তো চলুন, এমন একটা শেইক বানিয়ে ফেলি যেটা ভিটামিন বি ৭ অথবা বায়োটিনে  ভরপুর। যা চুলের বৃদ্ধির জন্যে খুবই উপকারী।

বায়োটিন শেইক তৈরিতে যা যা লাগছে-

  • কলা (কলায় রয়েছে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন বি ৭, মিনারেলস। যা নতুন চুল গজাতে এবং বৃদ্ধিতে বেশ ভালো কাজ করে।)

  • কাঠবাদাম ( কাঠবাদাম বায়োটিন এবং ফ্যাটি এসিডে ভরপুর। এছাড়াও এতে রয়েছে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট, ক্যালসিয়াম, জিংক, ম্যাগনেশিয়াম, আয়রন ইত্যাদি। এটি চুলকে ভেতর থেকে শাইনি এবং হেলদি রাখে।)

  • স্ট্রবেরী (যেকোন ধরণের বেরী ফ্রুটস ত্বক এবং চুলের জন্যে বেশ ভালো। স্ট্রবেরীতে প্রচুর পরিমাণে বায়োটিন এবং অ্যান্টি অক্সিডেন্ট রয়েছে।)

  • চিয়া সীড (চিয়া সীডকে নিউট্রিয়েন্টস এর পাওয়ার হাউস বলা হয়। এতে রয়েছে ওমেগা ৩, ফ্যাটি এসিড, ফাইবার, ভিটামিন বি, ভিটামিন সি, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, ফসফরাস, জিংক ইত্যাদি। চিয়া সীড গ্রহণে চুলের ভলিউম বৃদ্ধি পায়।)

  • টক দই (টক দইয়ে আছে ল্যাক্টিক এসিড, প্রোটিন। এটি চুলের ফলিকল গ্রোথে সাহায্য করে। )

  • কোকোনাট ওয়াটার  (কোকোনাট ওয়াটার চুলকে ভেতর থেকে ময়েশ্চারাইজ করে। এতে থাকা লরিক এসিড চুলের স্বাস্থ্য রক্ষা করে চুল পড়া রোধ করে।)

কীভাবে তৈরি করবেন বায়োটিন শেইক?

প্রথমে একটা ছোট বাটিতে ১ টেবিল চামচ চিয়া সীড নিবেন। এর মধ্যে পরিমাণ মতো পানি দিয়ে ১০-১৫ মিনিটের জন্যে ভিজিয়ে রাখুন। ১০-১৫ মিনিট পর দেখবেন চিয়া সীড গুলো ফুলে উঠেছে। চিয়া সীড আপনারা অনলাইনে পেয়ে যাবেন। চিয়া সীড না পেলে পামকিন/সানফ্লাওয়ার সীড ব্যবহার করতে পারেন। সেক্ষেত্রে ভেজানোর কোনো দরকার নেই।

অন্যদিকে ১ টা বড় কলা, ৪-৫ টি স্ট্রবেরী কেটে ছোট ছোট টুকরা করে নিন। একটি ব্লেন্ডারের জগে কলা, স্ট্রবেরী, ১০ টা কাঠবাদাম, টক দই, অর্ধেকটা চিয়া সীড,পরিমাণ মতো কোকোনাট ওয়াটার নিয়ে নিন।  সবকিছু ভালোভাবে ব্লেন্ড করে শেইক তৈরি করে নিন। এবার একটা মগে ঢেলে উপরে বাকিটুকু চিয়া সীড এবং মধু দিয়ে পরিবেশন করুন।

বিঃ দ্রঃ

এই শেইক টি সপ্তাহে ২-৩ দিন ব্রেকফাস্ট এর পরিবর্তে খাবেন। চুলে পরিবর্তন দেখতে হলে এটলিস্ট ২ মাস এই শেইক টি পান করবেন।

এই বায়োটিন শেইক টি কিন্তু অন্যান্য শেইক এর মতোই খেতে অনেক সুস্বাদু। তো এখন থেকে এই শেইক টি পান করে কোনো সাইড এফেক্ট ছাড়াই ঘন এবং লম্বা চুল পেতে পারেন।

ছবি – স্টাইলক্রেজ ডট কম, হেলথলাইন ডট কম, চয়েস ডট কম ডট এইউ

লিখেছেন – জান্নাতুল মৌ

Comments

comments

Recommended