মেকাপ, সম্পাদকের পছন্দ, সৌন্দর্য পরামর্শ

সঠিক স্কিন টোন নির্ণয়ের সহজ পাঁচটি পদ্ধতি!

গায়ের রঙ আর স্কিন টোন ব্যাপার টা সম্পূর্ণই আলাদা। গায়ের রঙ হতে পারে সাদা, শ্যামলা বা কাল কিন্তু স্কিন টোন হবে শীতল, উষ্ণ অথবা স্বাভাবিক। সঠিক স্কিন টোন নির্ণয় করতে পারলে তা আপনার জন্য খুবই হেল্পফুল হবে। সঠিক রঙের লিপস্টিক, চুলের রঙ বাছাই করতে আপনাকে আর বেগ পেতে হবে না।তাহলে চলুন দেখে নেয়া যাক সঠিক স্কিন টোন নির্ণয় করার পদ্ধতি সম্পর্কে।

পদ্ধতি এক

– মুখ ভালোভাবে পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। তারপর ১৫মিনিট অপেক্ষা করুন। মুখ ধোয়ার ফলে মেকাপ, লোশন, ক্রিম পরিষ্কার হয়ে যাবে যার ফলে সঠিক স্কিন টোন বুঝতে পারা সহজ হবে।

পদ্ধতি দুই

– প্রাকৃতিক আলোতে স্কিন টোন ভালো বোঝা যায়। ঘরের সবুজ বা হলুদ আলোতে সঠিক স্কিন টোন সম্পর্কে ধারণা পাওয়া যায় না। তাই সূর্যের আলোতে বসে স্কিন টোন নির্ধারণ করার চেষ্টা করুন।
জানালার পাশে বসুন।

– বাইরে কোথাও খোলা পরিবেশে বসুন।

পদ্ধতি তিন

হাতের কব্জির ভিতরের শিরা দেখার চেষ্টা করুন। প্রাকৃতিক আলোতে হাতটা ওপরে তুলে ধরুন।

-আপনার শিরার রঙ যদি নীল অথবা বেগুনি হয় তাহলে আপনার স্কিন টোন কুল প্রকৃতির।

– যদি সবুজ হয়, তবে আপনার স্কিন টোন ওয়ার্ম প্রকৃতির।

– আপনি যদি বুঝতে না পারেন যে আপনার শিরার রঙ বেগুনি নাকি সবুজ তাহলে আপনার স্কিন টোন সাধারন বা নিউট্রাল প্রকৃতির ।

পদ্ধতি চার

আপনার ত্বক কি সহজেই রোদে ট্যান হয়ে যায়? অথবা ত্বক রোদে পুড়ে কালো হয়ে যায়? ত্বকে থাকা মেলাটোনিন এর মাত্রা নির্ধারণ করে এটি রোদে কেমনভাবে রিএক্ট করবে এবং আপনার স্কিন টোন নির্ধারণ করতে সাহায্য করবে।

– যদি আপনার ত্বক সহজে ট্যান হয়ে যায় এবং কম পোড়ে, তাহলে আপনার ত্বকে মেলানিন এর মাত্রা বেশি এবং আপনার স্কিন টোন উষ্ণ বা স্বাভাবিক প্রকৃতির।

– আপনার ত্বক যদি পুড়ে যায় কিন্তু ট্যান না হয় তাহলে আপনার স্কিন টোন শীতল প্রকৃতির।

– যাদের গায়ের রঙ অনেকটাই কালো যা সহজে রোদে পুড়ে না তারা অনেক সময় নিজেদের সঠিক স্কিন টোন বুঝতে পারেন না। তবে তাদের স্কিন টোন শীতল প্রকৃতির হয়।

পদ্ধতি পাঁচ

কোন বন্ধূকে বলুন আপনার কানের পিছনের অংশ দেখতে। সাধারণত সেখানে কোন মেকাপ করা হয় না বলে সহজেই সঠিক রঙ বোঝা যায়।

– যদি হলুদ হয়, তাহলে আপনার স্কিন টোন উষ্ণ।

– যদি গোলাপি হয়, তাহলে আপনার স্কিন টোন শীতল।

– যদি দুটোর মাঝামাঝি হয়, তাহলে আপনার স্কিন টোন স্বাভাবিক।

এই তো জেনে নিলেন স্কিনের টোন নির্ধারণের কিছু সহজ পদ্ধতি। এভাবে নিজেই নিজের স্কিন টোন পরীক্ষা করুন এবং এই স্কিন টোনের সাথে মিলিয়ে মেকাপ ফাউন্ডেশন থেকে শুরু করে লিপস্টিক, আই শ্যাডো এর কালার নির্বাচন করুন। দেখবেন তখন আর বেমানান লাগবে না। মেকাপ করুন নিজের ত্বকের টোনের উপর নির্ভর করে। সুন্দর থাকুন সব সময়।

লিখেছেন  – মোহসেনা দেওয়ান পৃথিল

Comments

comments

Recommended