অন্যান্য, হাসিমুখ

মন ভালো নেই? জেনে নিন,মন ভালো করার দারুণ কিছু কৌশল

হয় না মাঝেমাঝে এমন, কোন কারণ ছাড়াই? বিষণ্ণতা জাঁকিয়ে বসে কখনো কখনো। ঠিক নিয়মিত ভালো না লাগার অসুখটা নয়। মন সত্যিই হুট করে গুমোট হয়ে থাকছে। কারণ কিছুই হয়তো নেই। অথচ এই মন ঠিক না থাকার কারণে অন্যান্য কাজেই মন দেয়া যাচ্ছে না। এমন আপদ বিদায় করার জন্য তবে কী করা?

মন ভালো করার কিছু কৌশল জানা থাকা চাই নিজের। সবসময়ই পাশে কেউ থাকে না মন খারাপের কারণ জানবার, অসুখ সারিয়ে ভালো রাখবার। নিজের ভালো থাকার চাবিকাঠি তাই নিজের হাতেই থাকুক।

অকারণ মন খারাপের বাজে দিক হলো কারণটাই জানা নেই, সারানো কেমন করে! তেমনি খুব ভালো একটা দিকও কিন্তু আছে। আপনি অন্তত এটুকু জানছেন, যে গুরুতর কোন কারণ নেই এই মন খারাপের পেছনে। আর তাই এটা কাটিয়ে উঠতে পারবেন খুব সহজেই! মিলিয়ে দেখুন এবার, আপনার মন ভালো করতে কোন দাওয়াই কাজে দেয়।

ঘরে বসে মন আরো গুমোট হয়ে যাচ্ছে না? তবে কোথাও ঘুরে আসুন। শান্ত, চুপচাপ কোন জায়গা হতে পারে এমন মন খারাপ দিনের ঠাঁই। কিংবা কেনাকাটা করতে বের হন যদি শপিং প্রিয় কাজ হয়ে থাকে আপনার। দেখবেন, ঘুরতে ঘুরতে মন খারাপের গুমোট ভাবটা অনেকটাই কেটে গেছে।

ঝিমকাটা ভাবটা কাটিয়ে নিজেকে চাংগা করে তুলতে কিছু দ্রুতলয়ের গান প্লে লিস্টে নিয়ে বসুন। মৃদুলয়ের গান না, হতে হবে মাথা ঝাঁকিয়ে মজা নেয়ার মতো গান। বেশ অনেকটা সময় ব্যয় করুন এই কাজে। ধীরে ধীরে মন হালকা হয়ে আসতেও পারে।

টুকিটাকি হাতের কাজ করার অভ্যাস থাকলে এমন দিনে কাজ নিয়ে বসে পড়ুন। ভালো কিছু তৈরি না হোক, কাজের মাঝে অশান্ত মন খানিক শান্ত হয়ে আসবে ঠিক। রং-তুলি নিয়ে এলোমেলো আঁচড় কাটাই হোক ক্যানভাসে। খাতার পাতা জুড়ে অর্থ ছাড়া শব্দরাই খেলতে থাকুক একদিন। মন ঠিক হতে পারে এসব ছোটছোট কাজেই।

বন্ধুবান্ধব বা ভাইবোনের দলবল নিয়ে আড্ডা জমান। একলা থাকলে অনেক সময় একটু মন খারাপও খুব যন্ত্রণা দেয়। তাই প্রিয়জনদের সান্নিধ্যে থাকুন। কোথাও খেতে যান সবাই মিলে, কিংবা মুভি দেখা হতে পারে একসাথে। কথা আর হাসির তোড়ে মন খারাপের কথাই ভুলে যাবেন।

খাবারে রুচি বেশি যাদের, তাদের তো মন ভালো না থাকলে খিদে বেড়ে যায় আরো। অনেকের ক্ষেত্রেই এই তত্ত্ব খাটে। আপনার বেলায়ও তাই কিনা দেখুন দেখি। মন ভালো না থাকার দিনে নিজেকে ট্রিট দিন। পছন্দের রেস্তোরাঁয় প্রিয় খাবার আর কফির মগে ডুবে যান খানিকটা সময়। নিজেকে বুঝুন এবং বোঝান, এসব অকারণ মন খারাপদের পাত্তা দিতে নেই।

স্বেচ্ছাশ্রম একটা দারুণ উপায় কিন্তু নিজের দুঃখবোধ কমিয়ে আনার। আপনি যেখানে মন ভালো না থাকার পিছনে কারণটাই ধরতে পারছেন না, সেখানে অগুনিত সমস্যা নিয়ে কতো অসহায় মানুষ নির্লিপ্ত দিন কাটাচ্ছে। তাদের জীবনে এতো এতো কারণ যে সেসব নিয়ে মন খারাপ করতে যাওয়াই বিলাসিতা। দেখুন না, একটা দিন বা এক বেলা হলেও তাদের কোন উপকারে লাগতে পারেন কিনা। তাদের দেখে আর তাদের জন্য কাজ করে নিজের মন খারাপ আর মনেই পড়বে না হয় তো।

ছবি – ফটোগ্রাফারস ডট ক্যানভেরা ডট কম

লিখেছেন – মুমতাহীনা মাহবুব

Comments

comments

Recommended