খাদ্য ও স্বাস্থ্য, ডেজার্ট, রান্নাবান্না

ফ্রুট কেক 

নিজেই তৈরি করে ফেলতে পারেন মজাদার ফ্রুট কেক। উপকরণ বেশি হলেও তৈরি করতে ঝক্কি কম। কাজেই রেসিপিটি দেখে ঝটপট তৈরি করে পরিবারের সবাইকে তাক লাগিয়ে দিন।

উপকরণ 

  • ক্যান্ডাইড লাল ও সবুজ চেরি টুকরো করে কাটা ১০/১২ টি
  • কিসমিস হাফ কাপ এর মতো
  • মোরব্বা – কয়েকটুকরা কুচি করে নেয়া
  • ড্ৰাই এপ্রিকট কয়েকটি টুকরা করে নেয়া 
  • ফ্রুট জুস – ২ টেবিল চামচ (আনারস, কমলা জুস নেয়া ভালো ) ( ইচ্ছা )
  • মাখন – হাফ কাপ ( রুম টেম্পারেচার এ রাখতে হবে )
  • ব্রাউন সুগার – ১ কাপ (সাদা চিনি ও দেয়া যাবে তবে সাদা চিনি দিলে ব্রাউন রং আসবে না)
  • ডিম- ৩ টি বড়
  • তরল দুধ আধা কাপ
  • ভ্যনিলা এক্সট্রাক্ট – আধা চা চামচ
  • দেড় কাপ ময়দা – দেড় কাপ ( ১ কাপ ১ টেবিল চামচ , (১৯৫ গ্রাম) )
  • বেকিং পাউডার – ১ চা চামচ
  • লবন – ১ চিমটি
  • লেবুর অথবা কমলার খোসা গ্রেট করা (লেমন অরেঞ্জ জেষ্ট )  – ১ চা চামচ

প্রণালী 

– কেক তৈরি করার আগে ওভেন প্রি-হিট করে নিন ১৮০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে ( ৩৫০ ফারেনহাইট )

– কেকের ছাঁচে মাখন ব্রাশ করে নিতে হবে।

– একটি বড় চালনিতে ময়দা, বেকিং পাউডার, লবন একসাথে চেলে নিয়ে এর সাথে লেমন/ অরেঞ্জ জেস্ট আর ফ্রুটসগুলো মিশিয়ে নিন।

– মাখন ও চিনি একসঙ্গে ফেটাতে হবে। চিনি গলে গেলে তাতে ফ্রুট জুস ভ্যানিলা এসেন্স ও অল্প দুধ দিতে হবে একদম স্মুথ হয়ে মিশে ফ্লাপি টাইপ হয়ে যাবে এই মিশ্রণ।

– এবার এই ব্যাটারে অর্ধেক ময়দার মিশ্রণ স্পাচুলা দিয়ে মিশিয়ে নিন। এরপর বাকি দুধটুকু মিশিয়ে নিন। এরপর বাকি ময়দার মিশ্রণ মিশিয়ে নিন হালকা হাতে মিশাবেন।

– এখন কেকের প্যানে মিশ্রণটি ঢেকে দিয়ে ওপরে কিছু ফ্রুট আর চেরী দিয়ে সাজিয়ে দিতে পারেন। ৪০ থেকে ৫০ মিনিট বেক করুন।

– ৪০ মিনিট পর ভেতরে একটা টুথপিক ঢুকিয়ে দেখতে পারেন ঠিকমতো বেক হয়েছে কিনা।

– ওভেন থেকে নামিয়ে ১০ মিনিট ঠাণ্ডা হতে দিন। তারপরে প্যান থেকে বের করুন।

– ঠান্ডা হলে গেলে কেটে নিন ১ দিন পর কিংবা ৮/১০ ঘন্টা পর খেতে মজা লাগবে কেকটি।

টিপস

দুই-একদিন পর সার্ভ করলে ফ্লেভারগুলো আরও ভালো করে মিশে যাবে একসাথে। রুম টেম্পারেচারে এক সপ্তাহ পর্যন্ত রেখে দেওয়া যেতে পারে এই ফ্রুট কেক। বেকিং এর সময়ে কেকটা বেশি কালচে হয়ে যাচ্ছে বলে মনে হলে একটা অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল দিয়ে ঢেকে দিতে পারেন।

ছবি – কুকডাইরি ডট কম 

রেসিপি –   সামিয়া’স হোম কিচেন 

Comments

comments

Recommended