মেকাপ

কারেকটিভ মেকাপ – ক্লান্ত মাঝারি চোখ আর মোটা ঠোঁটের জন্য

ক্লান্ত চোখ সাধারণ দৃষ্টিতে একটু ম্লান দেখায়। আবার কারো কারো চোখের নীচে একটু ফোলা ভাব থাকার কারণে সঠিক আইশ্যাডোর রঙ নির্বাচন করতে পারেন না আর ঠোঁট মোটা ও পুরু হওয়ার কারণে লিপস্টিক ছড়িয়ে যাবার বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। এই ধরণের পরিস্থিতিতে যাদের প্রায়ই পড়তে হয়, আজকের আর্টিকেলটি তাদের জন্য।

ধূসর, বেগুনি, খয়েরি এসব গাঢ় রঙের আইশ্যাডো দিনে যতটা পারবেন এড়িয়ে চলুন। এর বদলে নিন শিমারি আইশ্যাডো। নীল, গোলাপি, হালকা বাদামি, সিলভার, সবুজ জাতীয় pastle রঙ ব্যবহার করুন। কারণ এসব রঙ চোখের ক্লান্তি কাটিয়ে আনবে এক উজ্জ্বল দীপ্তি। MUA pretty pastle palette হবে দিনের বেলা এই জাতীয় চোখের মেকাপের জন্য আদর্শ। রাতের জন্য MUA undressed. সাধারণ বা জমকালো সাজের জন্য এটিই যথেষ্ট। অনলাইন পেজ গুলোতে ৬৫০-৮০০ এর মধ্যেই পেয়ে যাবেন । প্রতিদিন ব্যবহারের মোটামুটি সব রঙই আছে এখানে।

দিনের বেলা চোখের পাতা জুড়ে সফট কালার শ্যাডো লাগান। চোখের ভেতরের কোণায় চিকন করে আইলাইনার লাগিয়ে চোখের বাইরের কোণায় ক্রমশ মোটা করে রেখা টানুন। এতে চোখ কিছুটা উজ্জ্বল দেখাবে। একই ভাবে চোখের ভেতরের কোণায় সরু করে কাজলের রেখা টানুন, বাইরের কোণায় আঙ্গুলের ডগা দয়ে ঘষে একটু স্মাজ করে দিন। কয়েকবার অনুশীলন করলেই রপ্ত করতে পারবেন। দিনে ব্যবহার করুন ট্রান্সপ্যারেন্ট মাস্কারা। রাতের জন্য ব্যবহার করুন ব্রোঞ্জ, গোল্ডেন, কপার কালার। গোল্ডেন পার্ল বা সাদা শিমার দিয়ে হাইলাইট করে নিন brow bone. চোখের ভেতরের কোণাতেও গোল্ডেন শ্যাডো দিন অল্প করে। এতে চোখ উজ্জ্বল আর প্রানবন্ত দেখাবে। কাজল আর মাস্কারার ঘন প্রলেপ দিন চোখে। রাতে একটু মোটা করে আইলাইনার বেশ গর্জিয়াস লুক এনে দেবে চোখে। ফোলা চোখে কাজল ছড়িয়ে যাবার প্রবনতা খুব বেশি। অল্প একটু কালো শ্যাডো ব্রাশে নিয়ে কাজলের ঠিক নিচে হালকা রেখা টেনে মিশিয়ে দিন। দেখবেন কাজল ছড়াবেনা বা ছড়িয়ে গেলেও খুব একটা চোখে পড়বেনা।

এবার আসি ঠোঁটের সাজ নিয়ে। লিপস্টিক ছড়িয়ে যায় বা কিছু সময় পরেই হালকা হয়ে যায়; মোটা ঠোঁটের বেলায় এমন কথা প্রায়ই শোনা যায়। নিজের বয়স এবং ব্যক্তিত্ব অনুসারে যেকোনো রঙের লিপস্টিকই আপনি লাগাতে পারেন, তবে তা হতে হবে একদম ম্যাট। কারণ ম্যাট লিপস্টিক মোটা ঠোঁটে ছোট একটা লুক এনে দেয়। মোটা ঠোঁটের জন্য ব্যবহার করুন pink, mauve, taupe, natural brown ইত্যাদি রঙ। লিপ লাইনার দিয়ে outline এঁকে গরম কালে ম্যাট লিপস্টিক লাগিয়ে ফেলা যায় অনায়াসেই। তবে শীতকালে প্রথমে অল্প একটু লিপবাম দিয়ে ঠোঁট দুটিকে moisterized করে নিন। তারপর লিপস্টিক লাগিয়ে ফেলুন। যাদের কাছে ম্যাট লিপস্টিক নেই তারা ক্রিমি লিপস্টিককেই ম্যাট করে নিতে পারেন। লিপস্টিক লাগিয়ে এক পরত পাতলা টিস্যু ঠোঁটের অপর রেখে Powder brush দিয়ে কিছুটা পাউডার লাগিয়ে নিন। এরপর টিস্যু সরিয়ে ফেলুন। ব্যাস! হয়ে গেল ম্যাট লিপ্স। ঠোঁটের ঠিক উপরে cupid bow তে লাগিয়ে ফেলুন একটু খানি হাইলাইটার।

প্রিয় পাঠক, কোন মেকাপই একদিনে রপ্ত করা যায়না। আপনার চোখের আকার, মুখের গড়ন অনুযায়ী কী ধরণের সাজ বা লুক মানানসই হবে এটি আপনিই ভালো বুঝতে পারবেন। এই কৌশল গুলো ব্যবহার করে সাজার বিষয়টি আরও সহজ হবে আশা করি। শুভ কামনা রইল সবার জন্য।

লিখেছেন –  চৌধুরী তাহাসিন জামান

ছবি –  থিন ডট লিজি ডট কম ডট এইউ

Comments

comments

Recommended