অন্যান্য, ঘরকন্না, সম্পর্ক

মুখে ভালোবাসি না বলে মনেতে প্রেম

মুখে ভালোবাসি না বলে মনেতে প্রেম নিয়ে চলে আজ অনেকেই। তারা বলে,”ভালোবাসাই নাকি পৃথিবীকে গোলাকার বানিয়েছে,যার শুরু আছে শেষ নেই।” আর তাইতো ভালোবাসি বলার জন্য দিন-ক্ষণ ঠিক করে ঘটা করে বলার প্রয়োজন নেই বরং প্রতিটি সকাল যদি শুরু হয় একটা হাসি দিয়ে সেটাই কিন্তু নিমিষেই প্রকাশ করবে আপনার নিঃশর্ত ভালোবাসা। আর তিনটি জাদুকরী শব্দ শেষ কবে মনে করতে না পারলে নিজের উপায়গুলো চেষ্টা করে দেখতেই পারেনঃ

শুভ সকাল:

দিন শুরু করার আগে একটি ছোট উইশ ‘শুভ সকাল’ সঙ্গীর মন জয় করার সবচেয়ে শর্টকাট উপায়। প্রতিদিন সকালের সতেজ হাসি আর কপালে ঠোঁটের আলতো ছোয়া তার সারাদিনকে আন্দোলিত করার জন্য যথেষ্ট।

প্রিয় খাবার:

পুরুষ হৃদয় জয়ের সবচেয়ে সহজ উপায় হচ্ছে তার পাকস্থলী জয়। তার প্রিয় কুকিজ, পেস্ট্রি, চকলেট দিয়ে ফ্রিজ ভর্তি রাখুন। একটি ক্লান্তিকর দিনের শেষে বাড়ি ফিরে যদি ফ্রিজে প্রিয় খাবার পাওয়া যায় তবে তা অবশ্যই ভালোবাসি বলার চেয়েও অনেক জোর দিয়ে ভালোবাসি বলা হয়ে যায়।

হাত ধরুন:

আপনি বাড়িতেই পাশাপাশি বসে আছেন তাতে কি? আপনার সঙ্গীর সঙ্গে কিছু শারীরিক যোগাযোগ একটি সম্পর্কে স্ফুলিঙ্গের মতো কাজ করে। টিভি দেখার সময়, বাড়িতে, এমনকি রাস্তা পার হওয়ার সময় হাত ধরে থাকুন।

চিরকুট লিখুন:

ছোট চিরকুটে মনের কথা লিখে বালিশের পাশে রেখে দিন কিংবা লিপস্টিক দিয়ে লিখে আসতে পারেন আয়নায়। ‘আমি তোমায় ভালোবাসি’ বলার অপেক্ষা রাখে না। আপনার এই ছোট কাজই তার চোখে আপনাকে আরো স্পেশাল করে তুলবে।

ধন্যবাদ দিন:

আপনাদের সম্পর্ক অবশ্যই ফরমাল নয়। তবুও একটি ছোট ধন্যবাদ যদি সম্পর্কে অনেক বড় প্রভাব ফেলে তবে কেন নয়? আপনার প্রিয় আইসক্রিম কিংবা ফুল উপহার পেলে অথবা যেকোনো কারণেই আন্তরিকতার সাথে ধন্যবাদ দিন। পরিবর্তন নিজেই টের পাবেন।

মুখরোচক লাঞ্চ প্যাক করুন:

তিনি যদি হন ভোজন রসিক এবং আপনিও রান্না নিয়ে এক্সপেরিমেন্ট করার দলে, তবে সুযোগের সম্পূর্ন ব্যবহার করুন এবং তাকে একটি মুখরোচক লাঞ্চ প্যাক করে দিন। নিশ্চয়ই তিনি পরে শেফের প্রশংসা করতে ভুলবেন না।

একটি lovey-dovey ই-মেইল/ম্যাসেজ পাঠান:

একটি প্রেমপত্র লিখতে আপনার একজন কবি হওয়া জরুরী না বরং হৃদয় নিঃসৃত কথাগুলোই পরম যত্নে একটি রোমান্টিক ইমেইল টাইপ করুন এবং পাঠিয়ে দিন। শ’খানেক কাজের ইমেইলের মধ্যে আপনার lovey-dovey অক্ষরগুলো সঙ্গীর কাজের গতি বাড়িয়ে দিবে।

ছুটির পরিকল্পনা করুন:

সময়ের অভাবে লম্বা সময় নিয়ে দূরে কোথাও বেড়াতে যেতে পারছেন না? দুইদিনের ছুটির পরিকল্পনা করুন। স্বপ্তাহান্তে নিকটবর্তী কোনো রিসোর্টে চলে যেতে পারেন অথবা পরিকল্পনা করে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাকে অবাকও করে দিতে পারেন।

প্রশংসা করুন:

যখনই সুযোগ পান সঙ্গীর প্রশংসা করুন। যে কারণে তার প্রেমে বারবার পড়তে বাধ্য হচ্ছেন সেই কারণের প্রশংসা করুন। বিশেষ করে তার কাজের জন্য, তার ব্যবহারের জন্য। পরিবারের, বাইরের মানুষের সামনে প্রশংসা করুন। এটি তার মনোবল জিইয়ে রাখে, সামনে এগিয়ে যেয়ে সাহায্য করে আর আপনাদের সম্পর্ককে করে আরো গাঢ়।

যেকোনো সম্পর্কেই প্রয়োজন দুইপক্ষের আন্তরিক প্রচেষ্টা ও যত্নের, প্রয়োজন হয় শ্রদ্ধার। আপনার প্রতিদিনের চর্চায় মজবুতভাবে টিকে থাকুক পবিত্র আত্মিক সম্পর্কটি।

ছবি –  ডিপ্রেশানগাইড.কম

লিখেছেন-  মমতাজ আনার মুন্নি

Comments

comments

Recommended