হাল ফ্যাশন

কন্টাক্ট লেন্সের ব্যবহার

লেন্স কেনার সময়, সব সময়-ই দ্বিধায় থাকতে হয় কোন কালারের লেন্স কিনব, লেন্স টা মানাবে কিনা , গায়ের রঙ এর সাথে মিলবে কিনা, চোখের সাজ অথবা পার্টি মেক-আপের সাথে মিলবে কিনা। বাঙালি মেয়েদের সব চেয়ে বেশি মানায় “গ্রে” কালারের লেন্সে। তাছাড়া এখন অনেক বেশি চলছে নীল কালারের লেন্স। পাওয়ার লেন্স ছাড়া অনেক তরুণীই এখন লেন্স পরছে।

লেন্স পরার আগে কিছু জিনিস জেনে নেয়া ভালোঃ

• মার্কেটে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের লেন্স পাওয়া যায়। তাদের প্রায় সবার ১ বছরের গ্যারান্টি থাকে। কিন্তু লেন্স কখনই ৬ মাসের বেশি পরা উচিত না।

• যারা নতুন লেন্স পরছে, তারা প্রথমে নিজের চোখের কালারের সাথে যায় এমন কিছু লেন্স পরেন, তারপর অন্য কালারের লেন্স পরলে ভালো লাগবে। যাদের চোখের মনি বাদামি, তাদের হেজাল কালারের লেন্স পরলে ভালো লাগবে। যাদের চোখ নীল তারা, গ্রে অথবা গ্রিন কালারের লেন্স পরতে পারেন।

L

• চোখে ড্রামেটিক চেঞ্জ আনার জন্য এমন লেন্স পরবেন যেটা আপনার স্কিন এবং চুলের কালারের সাথে কনট্রাস্ট করে। যদি আপনার চুলের, চোখের অথবা ত্বকের কালার বাদামি হয়, তাহলে চোখে বেগুনি, সবুজ, নীল কালারের লেন্স ব্যবহার করতে পারবেন। যদি আপনার স্কিন ফর্সা হয়, চোখ সবুজ অথবা নীল হয় তাহলে ব্যবহার করবেন হেজাল অথবা বাদামি কালারের লেন্স। আজকাল সবাই সব ধরনের লেন্স পরছে। লেন্স কেনার আগে সব লেন্স ট্রায়াল দিয়ে তারপর লেন্স কিনুন। তাহলে বুঝবেন আপনার স্কিনের সাথে কোন রঙের টা মানায়।

প্রধানত লেন্স দুই প্রকার হয়। এক ধরনের লেন্স আছে যা পুরাই আপনার ন্যাচারাল চোখের কালার পরিবর্তন করবে। আর আরেকটি হলো নিজের চোখের কালার কে আরও সমৃদ্ধ করবে এমন কালার ( চোখের ন্যাচারাল কালার কে আরও উজ্জ্বল করবে)। আপনার স্কিন, চুলের রঙ, চোখের রঙ লেন্সের কালার নির্ধারণ করবে। নীচে এ ব্যাপারে একটি গাইড লাইন দেয়া হলো।

০১. যাদের স্কিন ফর্সা তাদের জন্যঃ

যাদের গায়ের রঙ ফর্সা তাদের সব ধরনের লেন্সেই ভালো লাগে।

– যাদের চোখের মনি কালোঃ blue, violet, turquoise, hazel.

– যাদের চোখের মনি নীলঃ Hazel Green, Pacific Blue, Warm Honey, Jade Green and Turquoise

– যাদের চোখের মনি সবুজঃ Turquoise, Sapphire Blue, Pacific Blue, Pearl Gray and Warm Honey

– যাদের চোখের মনি বাদামিঃ Pure Hazel Green, Jade Green, Sapphire Blue and Warm Honey

০২. যাদের স্কিন এর রঙ শ্যামলাঃ

যাদের গায়ের রঙ শ্যামলা তারা অলিভ থেকে শুরু করে হালকা বাদামি কালারের লেন্স পরতে পারে। তাছাড়া কমপ্লিমেন্টারি কালার হিসেবে সব ধরনের কালার-ই পরতে পারবে।

– যাদের চোখের মনি কালোঃ Brown, Hazel or Honey, Gray or Amethyst

– যাদের চোখের মনি নীলঃ Blue, Amethyst, True Sapphire, Warm Honey and Sapphire Blue

– যাদের চোখের মনি বাদামিঃ Honey, Jade Green, Green, Sapphire Blue and Amethyst

– যাদের চোখের মনি সবুজঃ Blue, Amethyst, True Sapphire, Warm Honey and Sapphire Blue

০৩. যাদের গায়ের রঙ কালোঃ

যাদের গায়ের রঙ কালো তারা উজ্জ্বল রঙের লেন্স পরা থেকে বিরত থাকুন। নিজের চোখের কালারের সাথে ম্যাচ করে লেন্স কিনুন।

– যাদের চোখের মনি কালোঃ Brown, Hazel or Honey, Gray or Amethyst

– যাদের চোখের মনি নীলঃ Honey, Hazel Green, Amethyst, Green, Brown and Chestnut

– যাদের চোখের মনি বাদামিঃ Pure Hazel, Honey, Hazel Green, Jade Green, True Sapphire, Sapphire Blue and Amethyst

– যাদের চোখের মনি সবুজঃ Amethyst, Warm Honey, True Sapphire, Sapphire Blue and Brown

লেন্স পরার কিছু সাইড এফেক্টঃ

০১. খুব ঘন ঘন লেন্স পরলে চোখ শুষ্ক হয়ে যেতে পারে।

০২. যাদের চোখে অ্যালার্জি আছে, তাদের চোখে লেন্স পরলে চোখ লাল হয়ে পানি পরতে পারে।

০৩. যেহেতু লেন্স প্লাস্টিক অথবা সিলিকন দিয়ে তৈরি, অনেকেরই লেন্স পরলে চোখ জ্বলে ।

০৪. লেন্স কে পরিষ্কার ভাবে না রাখলে, আপনার চোখে ইনফেকশন হতে পারে। কেননা চোখ শরীরের অন্যতম সেন্সেটিভ পার্ট।

০৫. দীর্ঘদিন ধরে লেন্স পরলে চোখের কর্নিয়া তে সমস্যা হয় ।

লেন্স এর দরদামঃ

বাংলাদেশে সবচেয়ে বেশি চলে ফ্রেশ লুক এবং ফ্যাশনের লেন্স। ফ্রেশ লুক লেন্স সল্যুশন সহ দাম পড়বে ১৩০০-১৫০০ আর ফ্যাশনের দাম পড়বে সল্যুশন সহ ১১০০। ফ্রেশ লুক যেকোনো চশমার দোকান, আল্মাস, প্রিয় তে পাবেন। ফ্যাশান পাবেন শুধু ফ্যাশানের আউটলেটে।

ছোট টিপসঃ

• পার্টি সাজের জন্য নীল, গ্রে, গ্রিনিশ গ্রে, নীল কালারের লেন্স পরলে অনেক ভালো লাগবে।

• লেন্স কখনই ২/৩ ঘণ্টার বেশি পরবেন না।

• লেন্স পরলে যদি চোখ লাল অথবা খচ খচ করে তাহলে লেন্স পরা থেকে বিরত থাকুন।

• লেন্স পরার আগে অবশ্যই হাত ভালো করে ধুয়ে নিবেন। পরিষ্কার হাত দিয়ে লেন্স পরবেন।

• লেন্স অবশ্যই পরিষ্কার এবং ড্রাই জায়গায় রাখবেন।

আশা করি পোস্ট টি ভালো লাগবে। ধন্যবাদ সবাই কে।

লিখেছেনঃ তাপসী

ছবিঃ পলিভোর.কম, কন্টাক্টকানেকশান.কম.এইউ

Comments

comments

Recommended