অন্যান্য, হাল ফ্যাশন

অনলাইনে কিনুন আপনার প্রিয় পন্যটি

বিদেশী পন্যের প্রতি দুর্বলতা প্রায় সবারই কম বেশি রয়েছে। বাজারে সহজলভ্য হলেও সেটা আসল না নকল সেটা নিয়ে একটু দিধা মনে থেকেই যায়। আর সেজন্য আজকাল সবাই বিদেশ থেকে তার মনমত  পণ্যটি কিনে আনার চেষ্টা করেন। আর এজন্য রয়েছে বিভিন্ন অনলাইন পেজ। ইদানিং অনলাইনে বিভিন্ন পেজগুলো থেকে কেনাকাটা অল্পবিস্তর  সবাই করছে।  কিন্তু অনেকেই কম বেশি প্রতারিত হচ্ছে। কেউ সময় মত জিনিস পাচ্ছে না বা কেউ হয়ত অনেকদিন অপেক্ষার পর টাকা ফেরত পাচ্ছে। কেউ না পাচ্ছে জিনিস না পাচ্ছে টাকা।  ফেইসবুকে এত পেজ এর ভিড়ে কোনটা নির্ভরযোগ্য আর  কোনটা না সেটাও বুঝেউঠা  মহা  মুশকিল। কোনটা থেকে কিনলে  কোন রকম ঝামেলা ছাড়াই মনের মত জিনিসটা পাওয়া যাবে সেটা নিয়ে অনেকের মনে অনেক প্রশ্ন।  তাই দীর্ঘদিন কেনাকাটার পর নিজের অভিজ্ঞতা থেকে এখানে কিছু নির্ভরযোগ্য কিছু পেজ এর সম্পর্কে আপনাদের ধারণা দেবার চেষ্টা করব।

লুক ( look) https://www.facebook.com/lookbdshop
পেজ টা তে ইউ.এস.এ , ইউ.কে এবং চীন এর প্রোডাক্ট এর জন্য অর্ডার করা যায়।
অর্ডার  রেঞ্জ ইউ.এস.এ. এর জন্য:
$১ -৩০  = ১০৫  টাকা ( মানে কোন পন্যের দাম ১ ইউ এস ডলার হলে আপনাকে তার বিপরীতে ১০৫ টাকা পরিশোধ করতে হবে)
$৩১ -২০০  = ১০০  টাকা
শিপিং কোস্ট ৭০০ টাকা  পার পাউন্ড অর  পার আউন্স/ ৪৪  টাকা.ডেলিভারি  হবে ১৫ – ২০ দিনের মধ্যে।
অর্ডার  রেঞ্জ ইউ.কে এর জন্য:
£১ – £২০০ = ১৪০  টাকা
৬০০ টাকা  পার কেজি অর  ১০০ গ্রাম /৬০  টাকা।  ৭০ % অগ্রীম প্রযোজ্য।
শুধু তাই নয় সাথে আছে  তাদের লোভনীয় সব অফার।  মাঝে মাঝে তাদের সর্বনিম্ন রেট ডলার প্রতি ৯৫ টাকা  পর্যন্ত হয়ে থাকে।  তখন সুযোগ বুঝে আপনার যা যা দরকার তা লুটে পুটে নিতে পারেন আর কি। অনলাইন এর পাশাপাশি আপনি তাদের সপ এ ও ভিজিট করে আপনার পছন্দ মত জিনিস কিনতে পারবেন। বসুন্ধরা কুড়িলে রয়েছে তাদের সপ। আপনার প্রয়োজন ও সুবিধা অনুযায়ী স্টক থেকে মন মত জিনিস কিনে আনতে পারবেন। অর্ডার এর বাইরেও তাদের রয়েছে বিশাল স্টক।  কোনো কারণে অর্ডার দিতে না পারলেও স্টক এর জিনিস থেকে কিনে নিতে পারেন। রয়েছে কুরিয়ার এর সুবিধাও। এই পেজটি আমার দেখা বেস্ট পেজ। ডলার রেটের পাশাপাশি তাঁদের ব্যবহারের প্রশংসা না করলেও চলেনা। প্রশ্ন করতে করতে আপনি হাপিয়ে উঠবেন কিন্তু বিন্দু মাত্র বিরক্তি প্রকাশ তাঁরা করবে না। অনেকেরই একটা কমন অভিযোগ যে পেজগুলোতে ইনবক্স করলে সময় মত উত্তর দেয়না। কিন্তু এই পেজ সে অভিযোগের অবকাশ টুকু দেবে না।

(Accessorizes) https://www.facebook.com/groups/215944685160407/:
আসলে এটি একটি গ্রুপ।  তার কোনো পেজ নেই।
এখানে ইউ.এস.এ , ইউ.কে এর পাশাপাশি ইন্ডিয়া থেকেও প্রোডাক্ট আনানো যায়। এটিই হয়ত প্রথম পেজ যেখানে ইন্ডিয়া থেকে প্রোডাক্ট এনে দেয়।
রুপি ১০০০ – রুপি ৫০০০= ১.৬৫ টাকা পার রুপি।
রুপি ৫০০১ – রুপি ২০,০০০= ১ .৬০ টাকা পার  রুপি।
কার্গো  চার্জ ৬০০ টাকা প্রতিকেজি অথবা ৬০ টাকা  /১০০ গ্রাম।  ৫০ % অগ্রীম প্রযোজ্য।
ঢাকার বেইলি রোডে রয়েছে তাদের সপ। সেখান থেকে আপনাকে আপনার প্রোডাক্ট নিয়ে আসতে হবে এছাড়া কুরিয়ার এর ও সুযোগও রয়েছে

বিডি শপিং সল্যুশন: (BD Shopping Solution):https://www.facebook.com/BDShoppingSolution
অর্ডার  রেঞ্জ ইউ.এস.এ. এর জন্য:
$১ -৯   = ১১০  টাকা
$১০ -২০০  = ১০০  টাকা
শিপিং  ৭০০ টাকা  পার পাউন্ড ডেলিভারি  হবে ৩০  দিনের মধ্যে।
অর্ডার রেঞ্জ ইউ.কে এর জন্য:
£১ – £৯ = ১৫৫  টাকা
£১০  – £৪৯ = ১৫০   টাকা
৬০০ টাকা  প্রতিকেজি, ৫০ % অগ্রীম প্রযোজ্য।  ধানমন্ডি এবং মিরপুর থেকে আপনারা প্রোডাক্ট নিয়ে আসতে পারবেন।

হট বন টন (haute bon ton) :https://www.facebook.com/B.BOLD.CLASSY
তাদের ডলার রেট আছে ১১৫ টাকা ডলারপ্রতি। অতিরিক্ত কোনো চার্জ এর দরকার নেই।  সেক্ষেত্রে হয়ত তাদের অর্ডার ডেটের বাইরে সবসময় অর্ডার নাও করা যেতে পারে এবং বিভিন্ন অফার গুলো আপনি মিস করতে পারেন।

কসমেটিকসের পাশাপাশি জুয়েলারীও ঘরে বসেই অনলাইন এ নিজের মনের মতন কিনে নিতে পারবেন। এক্ষেত্রে শুধু দেশেই  নয় দেশের বাইরের আপুরাও মন মত ডিজাইন দিয়ে দেশের জিনিস বাইরে বসে কিনে নিতে পারবেন ।

মুন জুয়েলারী :https://www.facebook.com/moon.jewellery?fref=ts

এটি কোনো পেজ বা গ্রুপ নয়।ওনার তার নিজের একাউন্ট এই জুয়েলারী বিক্রি করে থাকেন । প্রফাইলে দেয়া ডিজাইন ছাড়াও নিজের মনের মত ডিজাইন তাকে দিলে সেভাবেই তিনি বানিয়ে দেবেন।  কতটুকু রুপা লাগবে না লাগবে সেটা নিয়েও কথা বলে নেয়া যায় । যারা কিনতে চান তারা শুধু কোড অথবা লিংকটা কপি করে ইনবক্স এ দিয়ে দিলেই চলবে। যারা বিদেশ থাকেন তারাও কিনতে পারেন সেক্ষেত্রে পেমেন্ট এর ক্ষেত্রে ওয়েস্টার্ন ইউনিয়ন , মানি গ্রাম, তে আইডি এর ইনফো দিয়ে পিন কোড এর সাহায্যে পাঠিয়ে দিতে পারেন ।টাকা পাঠানোর ১৫ দিনের মধ্যে ডেলিভারি দেয়া  হয় । তবেপরিমানে বেশি হলে একটু বেশি সময় লাগতে পারে।

ই এম এস এর মাধমে জুয়েলারী বিদেশে পাঠানো হয়  । ই এম এসের অনলাইন পেজ তাদের সম্পর্কে জেনে নিতে পারেন ।

উপরোক্ত পেজগুলোর কথা আমার ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতায়  এখন পর্যন্ত নির্ভরযোগ্য মনে হয়েছে । আপনাদের অভিজ্ঞতাও শেয়ার করুন মন্তব্যে। তাহলে সবাই জানতে পারবে অনলাইনে কোন পেজ থেকে কেনাকাটা করা যায়।

বিঃ দ্রঃ সাজগোজ কতৃপক্ষের সাথে উপরে বর্ণিত কোন পেজের সাথে কোন রকমের এফিলিয়েশন নেই। 

লিখেছেন : বাধন মিমি
ছবি: সংগৃহীত

Comments

comments

Recommended