মেকাপ

কীভাবে ঠোঁটে লিপস্টিক দিবেন ?

যখনি আমরা মেক-আপ করি, লিপস্টিকটি সব সময় আমদের তালিকাভুক্ত থাকে। লিপস্টিক দিয়ে ঠোঁটটিকে রাঙ্গানোর মাধ্যমেই আমরা মেক-আপের সমাপ্তি টানি। আমরা সবসময়ই চেষ্টা করি পোশাকের সাথে মিল রেখে মানানসই কোন রঙে ঠোঁটটিকে রাঙ্গাতে। কিন্তু তার জন্য জানতে হবে আকর্ষণীয় করে ঠোঁট সাজানো বা লিপস্টিক দেয়ার সঠিক নিয়ম।

০১. আপনার ঠোঁটটি যদি শুষ্ক বা খসখসে হয় তাহলে সামান্য ময়েশ্চারাইজার বা ভিটামিন ই লাগিয়ে নিন।

০২. আপনার ত্বক ও চুলের রঙ অনুযায়ী লিপস্টিকের রঙ নির্বাচন করুন। যাদের ত্বকের রঙ কালো বা শ্যামবর্ণ তাদের জন্য লাল ও বাদামী রঙটি ব্যবহার না করাই উত্তম। ঠোঁটে লাল রঙ ব্যবহার করলে অবশ্যই মেক-আপ হালকা করে করতে হবে।

red lipstick

০৩. ছোট্ট একটি ব্রাশ দিয়ে ঠোঁটের বাইরে চারপাশ দিয়ে কিছু পাউডার লাগিয়ে নিন। তাহলে আপনার লিপস্টিকের রঙ বাইরে ছড়িয়ে পড়বে না।

০৪. ঠোঁটটি নিখুতভাবে আঁকার জন্য লিপলাইনারটি সরু করে নিন। লিপলাইনারের রঙ লিপস্টিকের রঙ থেকে হালকা হবে। এবার ঠোঁটের “V” আকৃতি থেকে আঁকা শুরু করুন এবং উপরের ঠোঁটের কোণা পর্যন্ত টানুন।

০৫. এবার নীচের ঠোঁটের মাঝামাঝি থেকে আবার আঁকা শুরু করুন। ঠোঁটের আকৃতি বড় করার জন্য লিপলাইনার দিয়ে ঠোঁটটিকে মোটা করে টানুন।

০৬. দীর্ঘসময় ধরে লিপস্টিক রাখার জন্য পুরো ঠোঁটটি লিপলাইনার দিয়ে ভরাট করুন। যদি আপনি চেহারায় হালকা লুক আনতে চান তাহলে লিপলাইনারটি হালকা করে লাগান।

০৭. এখন চিকন ব্রাশ দিয়ে ঠোঁটে লিপস্টিক লাগান। লিপস্টিকের রঙ অবশ্যই লিপলাইনারের রঙ থেকে গাঢ় হতে হবে।

lip

০৮. ঠোঁটটিকে আরও আকর্ষণীয় করে তোলার জন্য লিপগ্লস ব্যবহার করুন।

০৯. লিপস্টিক যেন দাঁতে লেগে না যায় সেজন্য একটি আঙ্গুল ঠোঁটের সামনে রেখে মুখটি “O” আকৃতি করে ফু ফু শব্দ করে বাতাস বের করুন তাহলে অতিরিক্ত লিপস্টিক আঙ্গুলে এসে পড়বে এবং দাঁতে আর লাগবেনা।

pic

লিখেছেনঃ আইরিন সুলতানা

ছবিঃ ব্রাইডস্পার্কালকম, মিউজিংস.ব্লগস্পট.কম, দ্যগ্লস.কম, ট্রেন্ডসইভ.কম

Comments

comments

Recommended