মেকাপ

মেকাপ দিয়েই বদলে ফেলুন নাকের গড়ন

মেকাপের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে চেহারার খুঁতগুলোকে আড়াল করা। নাক আমাদের চেহারার খুবই গুরুত্বপূর্ণ অংশ। মেকাপের সাহায্যে নাকের খুঁতগুলো খুব সহজেই আড়াল করা যায়। নাকের সেপকে ম্যানুপুলেট করতে চাইলে আমাদের প্রয়োজন দুই রঙের ফউন্ডেশন। একটি হাল্কা রঙের এবং অপরটি গাড় রঙের।

nose 1

বড় নাক

আপনার নাকের সেপ যদি বড় বা একটু ছড়ানো হয় তবে তা একটু ছোট করার জন্য আপনার স্কিনের চাইতে এক শেড গাড় রঙের ফাউন্ডেশন বা কন্সিলার চোখের কর্নার থেকে নাকের দুই পাশেলাগিয়ে নিতে হবে। নাকের উপরে (টি – জোন) হাল্কা রঙের ফাউন্ডেশন লাগাতে হবে। তারপর তা ভালভাবে মিশিয়ে নিতে হবে। এতে করে নাকের সেপ খাড়া মনে হবে।

ফ্ল্যাট বা কম খাড়া নাক

যদি আপনার নাকটি একটু কম খাড়া হয় তবে দুপাশ বাদে নাকের উপরের দিকে হাইলাইটার লাগিয়ে নিন এবং নাকের দুপাশের সাথে ভালভাবে মিশিয়ে দিন দেখবেন নাকটা কতটা খাড়া দেখায়।

 

চিকন বা পাতলা নাক

বড় নাককে পাতলা দেখাবার জন্য আপনার স্কিন কালার থেকে এক শেড গাড় রঙের ফাউন্ডেশন নিন। চোখের কর্নার থেকে শুরু করে নাকের দুই পাশে গাড় রঙের ফাউন্ডেশন লাগিয়ে দিন। এবার হাল্কা রঙের ফাউন্ডেশন নাকের উপরে  লাগাতে হবে। লক্ষ্য রাখতে হবে যেন ফাউন্ডেশন স্কিন এর সাথে ভালভাবে মিশে যায়। ফাউন্ডেশন এর পরিবর্তে ব্রোঞ্জ রঙের কনসিলারও ব্যবহার করা  যেতে পারে।

লম্বা নাক

যদি আপনি আপনার নাকটিকে একটু খাটো দেখাতে চান, তবে আপনার স্কিন কালার এর থেকে এক শেড গাড় রঙের ফাউন্ডেশন কপাল ও নাকের সংযোগ স্থলে লাগিয়ে নিতে হবে। তারপর তা ভালভাবে মিশিয়ে নিতে হবে।

nose2

লক্ষণীয়   
যখন মেকাপের  সাহায্যে নাকের সেইপ করবেন তখন অবশ্যই ম্যাট ফিনিশ ফাউন্ডেশন ব্যাবহার করতে হবে। যদি অয়েলি বা কম্বিনেশন স্কিন হয় তবে মেকাপের আগে টি – জোন-এ পাউডার লাগিয়ে নিন , তবে লক্ষ্যরাখুন পাউডারের পরিমাণ যেন বেশী না হয়। অতিরিক্ত পাউডার এবং মেকাপের  ন্যাচারাল লুক নষ্ট করে দেয়।

লিখেছেন – শায়লা

মডেল – জয়া

ছবি – ইমতিয়াজ

Comments

comments

Recommended